বিএনপিকে যে পরামর্শ দিলেন পেশাজীবী নেতারা

শাহনেওয়াজ বাবলু॥ দলের কেন্দ্রীয় ও অঙ্গ সংগঠনের সঙ্গে দুই দফা বৈঠকের পর এবার পেশাজীবী সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রথম দিন বৈঠক করেছে বিএনপি। গতকাল বেলা সাড়ে ৩টায় গুলশানস্থ বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যুক্ত হন। দুই দিনব্যাপী এ বৈঠকের প্রথম দিন জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন, আইনজীবী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, কৃষিবিদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, প্রযুক্তিবিদসহ অন্তত ২০টি পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা বৈঠকে অংশ নেন। বৈঠক সূত্রে জানা যায়, বৈঠকে মূলত ৩টি বিষয়ে বেশির ভাগ পেশাজীবী নেতাই তাদের মতামত দিয়েছেন। এগুলো হলো- দেশ ও বৈদেশিক সমসাময়িক রাজনীতি, জোট বিষয় এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি। এর মধ্যে দলের হাইকমান্ডের কাছে অনেকে তাদের লিখিত বক্তব্যও পেশ করেছেন।
বৈঠকে অংশ নেয়া অনেকেই গণমাধ্যমে কথা বলতে রাজি হননি। এরমধ্যে কেউ কেউ কথা বললেও নিজের নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি। এমনি বেশ কয়েকজন পেশাজীবী সংগঠনের নেতার সঙ্গে কথা হয় সাংবাদিকদের। তারা বলেন, এখানে প্রায় সবাই গতানুগতিক মতামত দিয়েছেন। তবে এর মধ্যে অনেকে বিএনপিকে গতানুগতিক রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসার পরামর্শও দিয়েছেন। এছাড়া জোট থেকে ইসলামী দলগুলো বেরিয়ে যাওয়ার কারণগুলো চিহ্নিত করার কথাও জানান তারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বৈঠকে অংশ নেয়া বিএনপিপন্থি দুই আইনজীবী জানান, আমরা আমাদের সুস্পষ্ট মতামত জানিয়েছি। দলের সাংগঠিক কার্যক্রম আরও বেগবান করার পাশাপাশি রাজনৈতিক মাঠে নিজের মিত্র দলগুলোর সঙ্গে ঐক্যের আলোচনার বিষয়েও মতামত দিয়েছেন বলে জানান তারা। এছাড়া দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে যথাযথ উদ্যোগ নেয়ার বিষয়েও বিএনপির হাইকমান্ডের কাছে নিজেদের মতামত জানিয়েছেন পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা।
এর আগে বৈঠকের শুরুতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাবন্দি, গণতন্ত্রের যে সংকট, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এর থেকে উত্তরণে আপনাদের মতামত রাখার আহ্বান করেছে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান। পেশাজীবী সংগঠনের প্রতিনিধিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট জয়নাল আবেদীন, নিতাই রায় চৌধুরী, আহমেদ আজম খান, ফজলুর রহমান, ফরহাদ ডালিম ডোনার, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, এডভোকেট রুহুল কুদ্দুস কাজল, ডা. শফিকুল হায়দার পারভেজ, প্রকৌশলী মাহবুল আলম, রিয়াজুল ইসলাম রিজু, সেলিম ভূঁইয়া, শামীমুর রহমান শামীম, গাজী কামরুল ইসলাম সজল, অধ্যাপক গোলাম হাফিজ কেনেডি, খন্দকার মোহাম্মদ হযরত আলী, জাহানারা সিদ্দিকী, শেখ মনিরউদ্দিন, কামরুল হাসান সর্দ্দার, জহিরুল ইসলাম শাকিল, রোকেয়া চৌধুরী বেবি, পারভিন কাওসার মুন্নী, সুমনা আক্তার স্মৃতি, শাহনাজ আক্তার প্রমুখ। দুদিনে ৩২টি পেশাজীবী সংগঠনের নেতা, প্রতিনিধিরা মতবিনিময়ে অংশগ্রহণ করবেন। আজ শনিবার পেশাজীবী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। এর আগে প্রথম দফায় ১৪-১৬ ও দ্বিতীয় দফায় ২১-২৩শে সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টা, যুগ্ম মহাসচিব, সম্পাদক, নির্বাহী কমিটির সদস্য, জেলা ও মহানগরের সভাপতি এবং অঙ্গ সংগঠনের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

ভাগ