হাসেম ফুড কারখানায় অগ্নিকাণ্ড : মালিক ও তার দুই ছেলের জামিন

লোকসমাজ ডেস্ক॥ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় সজীব গ্রুপের হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানায় (সেজান জুস) অগ্নিকাণ্ডে ৫২ জনের মৃত্যুর ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় গ্রেফতার আট জনের মধ্যে হাসেম গ্রুপের মালিক চেয়ারম্যান আবুল হাসেমসহ তার দুই ছেলেকে জামিন দিয়েছেন আদালত। সোমবার (১৯ জুলাই) নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আনিসুর রহমানের আদালতে জামিনের আবেদন করা হলে আদালত এ জামিন দেন।জামিনপ্রাপ্তরা হলেন সজীব গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. আবুল হাসেম (৭০), তার ছেলে হাসীব বিন হাসেম ওরফে সজীব (৩৯), তারেক ইব্রাহীম (৩৫)। এর আগে গত ১৪ জুলাই চার দিনের রিমান্ড শেষে তাদেরকে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুনের আদালতে আসামিপক্ষ সকলের জামিনের আবেদন করলে আদালত তার আরও দুই ছেলে তাওসীব ইব্রাহীম (৩৩), তানজীম ইব্রাহীম (২১)কে জামিনের আদেশ দেন।নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, সোমবার সজীব গ্রুপের চেয়ারম্যান হাসেমসহ তার দুই ছেলের জামিন দিয়েছেন আদালত। এর আগে আরও দুই ছেলের জামিন হয়েছিল। বাকিরা কারাগারে আছেন।
জানা গেছে, ৮ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার রূপগঞ্জ উপজেলার কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত ওই কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৫২ জনের মৃত্যু ঘটেছে যাদের ৪৯ জন আগুনে পুড়ে মারা গেছে। প্রায় ২৯ ঘণ্টা পরে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ওই ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় ১০ জুলাই একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন পুলিশের একজন কর্মকর্তা। ওই মামলায় পুলিশ কারখানা মালিক এম এ হাসেম (৭০), তার ছেলে হাসীব বিন হাসেম ওরফে সজীব (৩৯), তারেক ইব্রাহীম (৩৫), তাওসীব ইব্রাহীম (৩৩), তানজীম ইব্রাহীম (২১), সিইও (প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা) শাহেন শান আজাদ (৪৩), উপ মহাব্যবস্থাপক মামুনুর রশিদ (৫৩), সিভিল ইঞ্জনিয়ার ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিনকে (৩০) গ্রেফতার করা হয়। সেদিনই তাদের ৪ দিন করে রিমান্ডে নেওয়া হয়। এরই মধ্যে ১৪ জুলাই দুই ছেলে জামিন পান। ১৯ জুলাই জামিন পেয়েছেন চেয়ারম্যান হাসেমসহ আরও দুই ছেলে। বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন সিইও (প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা) শাহেন শান আজাদ, উপ মহাব্যবস্থাপক মামুনুর রশিদ, সিভিল ইঞ্জনিয়ার ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোঃ সালাউদ্দিন।

ভাগ