নিশ্চিত জয়ের সামনে দাঁড়িয়ে শ্রীলঙ্কা

লোকসমাজ ডেস্ক॥ দ্বিতীয় ইনিংসে জয়ের জন্য লক্ষ্য ৩৪৮ রানের। কিন্তু চতুর্থ দিন শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্কোরবোর্ডে ৫২ রান যোগ করেছে ৬ উইকেট হারিয়ে। পঞ্চম এবং শেষ দিনের জন্য হাতে জমা আঠে কেবল ৪ উইকেট। এখনও দরকার ২৯৬ রান। লঙ্কান স্পিনাররা বলকে যেভাবে লাটিমের মত ঘোরাচ্ছেন, তাতে বাকি ৪ উইকেট কতক্ষণ টিকে থাকতে পারে সেটাই দেখার বিষয়। অর্থ্যাৎ, নিশ্চিত জয় দেখতে পাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। গলে যেভাবে লঙ্কান ব্যাটাররা ব্যাট করেছে, তাতেই জয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যায়। বিশেষ করে অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। প্রথম ইনিংসেই তিনি খেলেছেন ১৪৭ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে করেছেন ৮৩ রান। তার অসাধারণ ব্যাটিংয়েই ব্যাকফুটে চলে যেতে হয়েছে ক্যারিবিয়ানদের। প্রথম ইনিংসে করুনারত্নের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে শ্রীলঙ্কা সংগ্রহ করেছিল ৩৮৬ রান। জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অলআউট হয়েছিল ২৩০ রানে। ক্যারিবীয় ইনিংসে একটি হাফ সেঞ্চুরি পর্যন্ত করতে পারেননি কোনো ব্যাটার। ১৫৬ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে শ্রীলঙ্কা। ৪ উইকেট হারিয়ে ১৯১ রান করার পর ইনিংস ঘোষণা করেন লঙ্কান অধিনায়ক। তিনি নিজে ৮৩ রান করা ছাড়াও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ ৮৪ বল খেলে ৬৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। ৬টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন তিনি। ১৯১ রানে ইনিংস ঘোষণার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের সামনে জয়ের জন্য লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৪৮ রান। কিন্তু জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে লঙ্কান ঘূর্ণি জাদুর মুখে পড়েন সফরকারী ব্যাটাররা। ওপেনার ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ১৪ বল খেলে কোনো রান না করেই আউট হয়ে যান। জার্মেইন ব্ল্যাকউড খেলেন ১৮ বলে ৯ রানের ইনিংস। সাই হোপ কোনো আশা না জাগিয়েই ৩ রান করে ফিরে যান। রস্টোন চেজ করেন ১ রান। কাইল মায়ার্স আউট হন ২ রান করে। জ্যাসন হোল্ডার কোনো রানই করতে পারেননি। ১৮ রানেই পড়ে যায় ৬ উইকেট। এরপরই বিপর্য সামলানোর দায়িত্ব নেন বোনার এবং ডি সিলভা। তিন নম্বরে নামা এনক্রুমা বোনার ৪৭ বল মোকাবেলা করে ১৮ রান নিয়ে উইকেটে আছেন এখনও। জসুয়া ডি সিলভা খেলেছেন ৫২ বল। রান করেছেন ১৫। এই দু’জনের দৃঢ়তায় আজই ম্যাচটা শেষ হয়নি। পঞ্চম দিন সকালে কতটুকু প্রতিরোধ টিকিয়ে রাখতে পারেন এই দুই ব্যাটার, সেটাই দেখার বিষয়। নাকি অলৌকিক কোনো কিছু দেখিয়ে ম্যাচটা বাঁচিয়ে দিতে পারবেন তারা!

ভাগ