আফগানিস্তানে সেনা রাখার ‘পরামর্শ’ মনে পড়ছে না বাইডেনের

লোকসমাজ ডেস্ক॥ উদ্ধার অভিযান সামনে রেখে অন্তত আড়াই হাজার সেনা সদস্য আফগানিস্তানে রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের দুই শীর্ষ জেনারেল। মঙ্গলবার কংগ্রেসে দেওয়া সাক্ষ্যে জেনারেল মার্ক মিলি এবং ফ্রাঙ্ক এমন তথ্য জানান। তবে তাদের এ বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। কারণ বাইডেন বলেছেন এ ধরনের পরামর্শ তাকে কেউ দিয়েছে কি না তা তিনি মনে করতে পারছেন না। মিলি বলেছেন, আফগান সরকারের দ্রুত পতন দেখে যুক্তরাষ্ট্রও হতবাক হয়ে যায়। সিনেটের আর্মড সার্ভিস কমিটি যুক্তরাষ্ট্রের এই দুই শীর্ষ জেনারেল এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনকে আফগানিস্তানের উদ্ধার অভিযান নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন করে। রিপাবলিকান সিনেটরদের প্রশ্নে উদ্ধার অভিযানের পর্যবেক্ষণকারী ও যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় কমান্ডের প্রধান জেনারেল ফ্রাঙ্ক বলেন, আমি আফগানিস্তানে আড়াই হাজার সেনা রাখার পরামর্শ দিয়েছিলাম। যদিও তার এ বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনে সংঙ্গে সাংঘর্ষিক কারণ এর আগে গত ১৯ আগস্ট এবিসির এক সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, এ ধরনের কোনো পরামর্শ কেউ তাকে দিয়েছিল কি না তা মনে নেই তার। জেনারেল মার্ক মিলি জানান, তিনি ওই সুপারিশের সঙ্গে একমত ছিলেন। কিন্তু আলাস্কার রিপাবলিকান ড্যান সুলিভান যখন জানতে চান প্রেসিডেন্ট বাইডেনের মন্তব্য মিথ্যা কি না তখন সরাসরি কোনো উত্তর দিতে অস্বীকৃতি জানান তিনি। হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জেন সাকি বলেন, রাষ্ট্রপতি যৌথ ও সামরিক বাহিনীর প্রধানদের পরামর্শের গুরুত্ব দেন কিন্তু তার মানে এই নয় যে তিনি সব সময় তাদের সঙ্গে একমত হবেন। তিনি বলেন, চুক্তির সময়সীমা অতিক্রমের পরেও যদি সেনা সদস্যদের আফগানিস্তানে রেখে দেওয়া হতো তাহলে এখন যুক্তরাষ্ট্র তালেবানের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়ে যেতে পারতো।

ভাগ