দেশে চলছে এক ব্যক্তির কর্তৃত্ববাদী শাসন : মোংলায় এ্যানি

0

বাগেরহাট ও মোংলা সংবাদদাতা ॥ বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক ও ত্রাণ কমিটির সদস্য সচিব শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি বলেছেন, আগে ছিল একদলের শাসন, এখন দেশে চলছে এক ব্যক্তির ফ্যাসিবাদী ও কর্তৃত্ববাদী শাসন। বাংলাদেশকে লুটেরা ও মাফিয়া বাহিনী দখল করে রেখেছে। এ কারণে বিচার বিভাগ, আইনের শাসন ও জনগণের ভোটের অধিকার নেই, বাংলাদেশের ব্যাংকে টাকা নেই, সব টাকা লুট হয়ে গেছে। এজন্য দেশের মানুষ অভাব অনটনে আছেন। এতে একটি পরিবার একজন ব্যক্তি লাভবান হচ্ছে ।
বুধবার দুপুরে বাগেরহাটের মোংলা উপজেলার দিগরাজ বাজার এলাকায় ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত দরিদ্রদের মাঝে বিএনপির পক্ষ থেকে টাকা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
সাবেক এই ছাত্র নেতা আরও বলেন, দেশের পরিবেশ ও জলবায়ু ঠিক রাখতে সুন্দরবন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ঝড়-জলোচ্ছ্বাসে মায়ের মত আটকে রাখে এই বন। কিন্তু এই বন ধ্বংস করতে পরিকল্পিতভাবে রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র করা হয়েছে। হাজার হাজার কোটি টাকা ব্যয়ের এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রায়ই থাকে বন্ধ। এ দিয়ে কোনো উপকার না হলেও, ক্ষতি হচ্ছে পরিবেশের। আসলে সবই লুটপাটের উদ্দেশ্যে, মানুষের জন্য কিছু না। গণমানুষের দল বিএনপি এই লুটেরাদের নামিয়ে ছাড়বে, যতদিন সরকারের পতন না হয়, ততদিন আমাদের আন্দোলন চলবে।
টাকা প্রদান অনুষ্ঠানে বিএনপির তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারি হেলাল, ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক (খুলনা বিভাগ) অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ওবায়দুল ইসলাম, সহ-প্রচার সম্পাদক কৃষিবিদ শামীমুর রহমান, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিম, সাবেক জেলা সভাপতি ও প্রধান সমন্বয়ক এম এ সালাম, যুগ্ম আহ্বায়ক ড. শেখ ফরিদুল ইসলাম, মোংলা পোর্ট পৌরসভার সাবেক মেয়র জুলফিকর আলী, রামপাল উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাফিজুর রহমান তুহিন, বাগেরহাট পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ওবায়দুল ইসলাম জুয়েল, জেলা যুবদলের প্রধান সমন্বয়ক আইয়ুব আলী মোল্লা বাবু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম শান্ত, জেলা মহিলা দলের সভাপতি শাহিদা আক্তার, মহিলা দল নেত্রী অ্যাড. নীপা তালুকদারসহ উপজেলা-জেলা বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পরে রামপাল উপজেলার বগুরা ব্রিজ এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে টাকা প্রদান করা হয়। এদিন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশনায় রামপাল ও মোংলায় ২ শতাধিক ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে ৩ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়।