জেদ্দা-রিয়াদ-মদিনায় যাবে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট

লোকসমাজ ডেস্ক॥ আগামী বছরের জুনে ঢাকা থেকে জেদ্দা, রিয়াদ ও মদিনা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। সৌদিপ্রবাসী বিশেষ করে জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা, দাম্মামে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের যাত্রীসেবা দেওয়ার জন্য এ রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। বুধবার (২৪ নভেম্বর) ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো. কামরুল ইসলাম এ তথ্য জানান। তিনি জানান, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে যাত্রীদের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। ২০২২ সালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স, বিশ্ব অ্যাভিয়েশন তথা বাংলাদেশ অ্যাভিয়েশন মার্কেটে করোনা-পরবর্তী সময়ে নানান চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে।
মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম দেশ সৌদি আরবের বিভিন্ন অঞ্চলে বাংলাদেশি প্রবাসীদের বড় একটি বসবাস করে। ইউএস-বাংলার অগ্রযাত্রার সঙ্গে সঙ্গে সৌদিপ্রবাসী বিশেষ করে জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা, দাম্মামে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের যাত্রীসেবা দেওয়ার জন্য আগামী বছরের জুনে ঢাকা থেকে জেদ্দা, রিয়াদ ও মদিনা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। তিনি আরও জানান, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ঢাকা থেকে জেদ্দা, রিয়াদ ও মদিনায় ফ্লাইট চলাচলের জন্য বিশ্ববিখ্যাত এয়ারলাইন্স এমিরেটস, কাতার এয়ারওয়েজ, সৌদি এয়ারলাইন্স যে ধরনের এয়ারক্রাফট বিশেষ করে এয়ারবাস ৩৩০-২০০/৩০০ ব্যবহার করে থাকে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সও বাংলাদেশি প্রবাসীদের একই ধরনের এয়ারক্রাফট ব্যবহার করে যাত্রীসেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।
২০১৪ সালের ১৭ জুলাই থেকে যাত্রা শুরু করা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স প্রায় আট বছর ধরে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ অ্যাভিয়েশন মার্কেটে যাত্রীদের মধ্যে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। যাত্রা শুরুর পর ধারাবাহিকভাবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স দেশের অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করেছে। এমনকি ক্রস কান্ট্রি ফ্লাইট ধারণা থেকে যশোর থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার কিংবা সৈয়দপুর থেকে চট্টগ্রামে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স দুবছর পূর্তি হওয়ার পূর্বেই ঢাকা থেকে কাঠমান্ডু রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রবেশ করে। ব্যবসায়ের অগ্রযাত্রার স্থিতিশীলতা বজায় রেখে এগিয়ে চলা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বহরে চারটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, সাতটি ব্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ সহ ১৪টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। আগামী পাঁচ মাসের মধ্যে বিমান বহরে তিনটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ ও চারটি ব্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০ যোগ করতে যাচ্ছে ইউএস-বাংলা। মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম গন্তব্য জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা রুটসহ ইউরোপে বিশেষ করে লন্ডন, আমস্টারডাম, রোমসহ বিভিন্ন গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য ২০২২ ও ২০২৩ সালের মধ্যে আটটি এয়ারবাস ৩৩০-২০০/৩০০ এয়ারক্রাফট যুক্ত করার পরিকল্পনা নিয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

ভাগ