সংসার ভাঙার গুঞ্জনে মুখ খুললেন মা, বার্তা দিলেন প্রিয়াঙ্কাও

লোকসমাজ ডেস্ক॥ বলিউড পেরিয়ে এখন হলিউডের পরিচিত নাম প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তবে মনেপ্রাণে তিনি ‘দেশি গার্ল’ তা প্রমাণ করেছিলেন বিয়ের পরেই। নিজের নামের পাশে জুড়েছিলেন স্বামীর পদবি। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজের নাম থেকে স্বামীর পদবি ‘জোনাস’ মুছে ফেলেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সে নিয়ে চলছে হইচই ও নানা রকম কানাঘুষা। দক্ষিণি নায়িকা সামান্থা রুথ প্রভু এর আগে তার নাম থেকে স্বামী নাগা চৈতন্যর ‘আক্কিনেনি’ পদবি সরিয়ে দিয়ে ডিভোর্সের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তাই প্রিয়াঙ্কা সে পথে হাঁটছেন কি না, এ নিয়েই শুরু হয়েছে জল্পনাকল্পনা। তবে এ গুঞ্জনে জল ঢেলে দিলেন প্রিয়াঙ্কার মা। তিনি ভারতীয় গণমাধ্যমে বলেন, ‘প্রিয়াঙ্কা আর নিকের বিবাহবিচ্ছেদের খবর সম্পূর্ণ গুজব।’ তিনি অনুরোধ করেন, এ ধরনের মিথ্যা খবর কেউ যেন না ছড়ায়। এই বিবাহবিচ্ছেদের খবরের মধ্যে নিক তার শরীরচর্চার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেছেন। ভিডিওতে দেখা গেছে, নিক জিমে তার শরীর গঠনে ব্যস্ত। তবে ভিডিওটি আরও বিশেষ হয়ে উঠেছে প্রিয়াঙ্কার ভালোবাসায় ভরা এক মন্তব্যে। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া লিখেছেন, ‘কসম! তোমার ওই বাহুযুগলে আমি মরেছি।’ বিয়ের পর এক সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কাকে তার পদবি নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। কারণ, তিনি তার নামের সঙ্গে স্বামীর পদবি ‘জোনাস’ জুড়েছিলেন। এ ব্যাপারে সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী বলেছিলেন, ‘সব সময়ই আমি নিকের সঙ্গে আমার নাম জুড়তে চেয়েছিলাম। কারণ, আমার বিশ্বাস, আমরা একটা পরিবার।’ এ সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা বলেন, তিনি পরম্পরা মেনে চলতে ভালোবাসেন। প্রিয়াঙ্কা নিজেকে এ ব্যাপারে প্রাচীন চিন্তাধারায় বিশ্বাসী বলে জানিয়েছিলেন। আর তাই বিয়ের পর তার নামের সঙ্গে ‘জোনাস’ পদবি যুক্ত করেছিলেন।

ভাগ