রাষ্ট্রপতির সংলাপে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার দাবি কল্যাণ পার্টির

লোকসমাজ ডেস্ক॥ নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সংলাপে অংশ নিয়ে আলোচ্যসূচির বাইরে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি। এছাড়া নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটি করতে তিনজনের নাম প্রস্তাব করেছে দলটি। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) রাত ৮টায় বঙ্গভবন থেকে বেরিয়ে এ কথা জানান বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব আব্দুল আউয়াল মামুন।
সাংবাদিকদের কল্যাণ পার্টির মহাসচিব বলেন, আমরা যেহেতু ২০ দলীয় জোটের শরিক, আমরা এখানে দেশের অনেক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করি। এজন্য আমরা রাষ্ট্রপতির কাছে মূল ইস্যুর বাইরে গিয়ে প্রথমেই বলেছি, খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে। কারণ এখন এটা একটি বার্নিং ইস্যু। আমরা মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে বলেছি এ বিষয়ে এটা রাষ্ট্রপতি উনার বিশেষ ক্ষমতার মাধ্যমে যেন বিবেচনা করেন। বর্তমান ক্ষমতাসীনদের বোঝানোর মাধ্যমে যেন একটি কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। আলোচ্যসূচির বাইরে গিয়ে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে যা বলেছেন তা নিয়ে রাষ্ট্রপতি কী বলেছেন সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা নিয়ে রাষ্ট্রপতি পজিটিভ। তিনি যেটা বলেছেন, রাষ্ট্রপতির একটা পাওয়ার আছে কিন্তু পাওয়ারটা নিতে হলে আপনাকে প্রসিডিউর মেইনটেইন করে আসতে হবে, যা তিনি আমাদের ভেঙেই বলেছেন। কল্যাণ পার্টির মহাসচিব বলেন, আমরা মনে করি যুদ্ধের ময়দানেও আলোচনার পথ খোলা থাকতে হবে। আলোচনা মানে উনি আমাদের সব মেনে নেবেন এটাও নয় আবার কিছুই মানবেন না এও নয়। তবে আমরা আশাবাদী হতে চাই। তিনি বলেন, সংলাপে যারা আসেননি কিংবা যারা এসেছেন সবাইকে আমরা শ্রদ্ধা করি। কারণ এটা তাদের ইন্ডিভিজুয়াল ডিসিশন। রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত। যেকোনো রাজনৈতিক দল তাদের সিদ্ধান্ত নিতে পারে। নির্বাচন কমিশন গঠনের বিষয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য আমরা সার্চ কমিটি করার জন্য তিনজনের নাম প্রস্তাব করেছি। বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির মহাসচিব আব্দুল আউয়াল মামুনের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের প্রতিনিধি দল এর আগে বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিটে বঙ্গভবনে প্রবেশ করে। দলটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক অসুস্থ থাকায় প্রতিনিধি দলে ছিলেন না। দলে আরও ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. শাহেদ উল ইসলাম, প্রফেসর ইকবাল হাসান মাহমুদ, অতিরিক্ত মহাসচিব মো. নুরুল কবির পিন্টু ও ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন ফরাজী।

ভাগ