যশোরের সেই বৃদ্ধের পাশে এবার আইজিপির স্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার॥ যশোরে রাস্তার পাশে পড়ে থাকা সেই বৃদ্ধের পাশে দাঁড়িয়েছেন আইজিপির স্ত্রী। সোমবার মধ্যরাতে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে বৃদ্ধের খোঁজখবর নিয়ে জানায় আইজিপির স্ত্রী পুনাক সভাপতি এই বৃদ্ধকে ঢাকায় নিয়ে চিকিৎসার করাবেন। এর আগে রোববার দিবাগত মধ্যরাতে র‍্যাব সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ সময় র‍্যাব ক্যাম্প কমান্ডার তার চিকিৎসা ও স্বজনদের খুঁজে বের করার দায়িত্ব নেয়ার কথা জানান। সোমবার মধ্যরাতে যশোর পুলিশের মুখপাত্র ডিবির ওসি রুপণ কুমার সরকার জানান, যশোর শহরের রেলগেট এলাকায় পড়ে থাকা সেই অজ্ঞাত অসুস্থ বৃদ্ধের সুচিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন আইজিপির সহধর্মিনী ও পুনাক সভানেত্রী মিসেস জীশান মীর্জা। রোববার সংবাদ প্রকাশের পর খবরটি বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেলের সহধর্মিনী ও পুনাক সভানেত্রী মিসেস জীশান মীর্জার নজরে আসে এবং বিষয়টি তিনি মানবিক দৃষ্টিতে দেখেন। তিনি যশোর জেলার পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দারকে বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ-খবর নিতে বলেন এবং একইসঙ্গে বৃদ্ধের সুচিকিৎসার দায়িত্বভার নেন। পুলিশ সুপার বৃদ্ধ ব্যক্তির দেখভাল এবং পুনাক সভানেত্রীর ব্যবস্থাপনায় সুচিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।
সোমবার রাতে পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ‘ক’ সার্কেল বেলাল হোসাইনের নেতৃত্বে একটি টিম ওই বৃদ্ধকে সুচিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর উদ্দেশ্যে ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে যান। এ সময় তিনি তার জন্য আইজিপির সহধর্মিণী ও পুনাক সভানেত্রী মিসেস জীশান মীর্জার পক্ষ থেকে বিভিন্ন প্রকার ফল, জুস ও খাবার সামগ্রী নিয়ে যান। তাকে মঙ্গলবার সকালে জেলা পুলিশের তত্ত্বাবধানে পুনাক সভানেত্রীর ব্যবস্থাপনায় সুচিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হবে। এর আগে শহরের রেলগেট এলাকায় পাঁচদিন ধরে সড়কের পাশে ফুটপাতে পড়ে থাকা অজ্ঞাতপরিচয় ওই বয়োবৃদ্ধকে (৭০) রোববার মধ্যরাতে উদ্ধার করে র‍্যাব। র‍্যাব-৬ যশোরর কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার নাজিউর জানান, সড়কের পাশে ফুটপাতে পড়ে থাকা অজ্ঞাতপরিচয় অসুস্থ বয়োবৃদ্ধের খবরটি জানতে পেরে রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনিসহ র‍্যাব টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বৃদ্ধকে উদ্ধার করেন। এরপর রাত ১টার দিকে তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। এসময় তিনি র‍্যাবের পক্ষ থেকে তার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করার ঘোষণা দেন ও তার স্বজনদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে বলেও উল্লেখ করেন। প্রসঙ্গত, ৫ দিন ধরে অজ্ঞাতপরিচয় ওই বৃদ্ধ যশোর শহরের রেলস্টেশনের পাশের সড়কের ফুটপাতে পড়েছিলেন। সঙ্কটাপন্ন বৃদ্ধকে বাঁচাতে রোববার দুপুরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন প্রাইভেটকার চালক সাজু হোসেন। এরপর ঘটনাস্থলে যান যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম। কিন্তু তিনি সেখানে গিয়ে আশপাশে থাকা লোকজনদের বলে আসেন, এখানে পুলিশের কিছু করার নেই। ফলে বৃদ্ধটি ফুটপাতেই পড়ে থাকেন।

ভাগ