টেস্ট দল ঘোষণার আগে দুশ্চিন্তায় চার পেসারের ফিটনেস

লোকসমাজ ডেস্ক॥ অধিনায়ক মুমিনুল, ওপেনার সাদমান, মুশফিকুর রহীম, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ রাহী, ইবাদত আর নাইম হাসানরা ক’দিন আগে থেকেই চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে লাল বলে প্র্যাকটিস করছেন। শেষ মুহূর্তে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড থেকে বাদ পড়া সাইফ হাসানও যোগ দিয়েছেন ওই বহরে। তাদের সাথে আর কে কে টেস্ট দলে যুক্ত হবেন? ১৬ জনের টেস্ট দলে থাকছেন কারা? তা জানতে রাজ্যের কৌতূহল। মূলতঃ পাকিস্তান টেস্ট দল বাংলাদেশে চলে আসলেও যখন বাংলাদেশের টেস্ট দল ঘোষণা হয় না, তখনই কৌতুহলটা বেশি জন্ম নেয়। আগেই জানা, তামিম ইকবাল নেই টেস্ট সিরিজে। চিকিৎসার জন্য লন্ডন আছেন তিনি। সাকিবও হয়ত সোমবার দেশে ফিরবেন। তবে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার চট্টগ্রাম টেস্ট খেলবেনই এমন নিশ্চয়তা মেলেনি। তার খেলা না খেলা নির্ভর করছে ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফাতোর রিপোর্টের ওপর। তবে ধারনা করা হচ্ছে প্রথম টেস্ট খেলতে না পারলেও হয়ত দ্বিতীয় টেস্ট খেলবেন সাকিব। তাই তার ১৬ জনের ভিতরে থাকার সম্ভাবনা খুব বেশি।
প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু রোববার বিকেলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, ‘সোমবার দল দিয়ে দেবো।‘ কতজনের দল? নান্নুর জবাব, ১৬ জনের। টেস্ট দল নিয়ে কোনরকম পরীক্ষা-নীরিক্ষার সম্ভাবনা খুব কম। টি-টোয়েন্টি সিরিজের মত কোন আনকোরা তরুণ বা একদম নতুন মুখের অন্তর্ভুক্তির সম্ভাবনাও খুব কম বলে জানা গেছে। তবে নির্বাচকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে তারা পেস বোলিং নিয়ে চিন্তিত। স্কোয়াডে চার পেসার ধরেই সম্ভাব্য টিম কম্বিনেশন সাজানোর চিন্তা চলছে; কিন্তু এখন অবস্থা যা, তাতে ৪ পেসার পাওয়াই কঠিন হয়ে পড়েছে। মোস্তাফিজ আর শরিফুল কেউই শতভাগ ফিট নন। শরিফুলের হ্যামস্ট্রিং সমস্যা আছে একটু। কাল সোমবার সকালে ফিটনেস টেস্ট হবে। ওদিকে মোস্তাফিজের সাইড স্ট্রেইন। ভরসা কেবল তাসকিন। প্রায় টানা খেলছেন এ দ্রুত গতির বোলার।
প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর কায়মনোবাক্যে কামনা, সোমবার পাকিস্তানের সাথে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটা তাসকিন ভালোয় ভালোয় শেষ করলেই হয়। নান্নুর কথা, ‘আল্লাহ না করুন, তাসকিনের কিছু হয়ে গেলে শেষ। টেস্টে একজন জেনুইন ফাস্ট বোলার কমে যাবে। এমনিতেই ৪ পেসার নিয়ে আছি খানিক চিন্তায়।’ চিন্তা বলতে পেসারদের সাম্প্রতিক ফর্ম নয়, ইনজুরির কথাই বুঝিয়েছেন নান্নু। শরিফুলের হালকা ইনজুরির কথা অকপটেই স্বীকার করেছেন তিনি। বলার অপেক্ষা রাখে না তাসকিন, শরিফুল আর আবু জায়েদ রাহীর সাথে চতুর্থ পেসার হিসেবে ধরা হয়েছে ইবাদতকে। তাদের সাথে সাকিবকে ধরে অফ স্পিনার নাইম হাসান-মেহেদি হাসান মিরাজ এবং তাইজুল- এই চার স্পিনার। তাহলে হলো ৮ জন। বাকি ৮ জনের মধ্যে সাদমান ইসলাম, সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, নুরুল হাসান সোহান, ইয়াসির আলী রাব্বি ও লিটন দাসের সম্ভাবনাই বেশি।

ভাগ