১৮ মাস পর সীমান্ত খুলছে অস্ট্রেলিয়া

লোকসমাজ ডেস্ক॥ প্রায় ১৮ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে সীমান্ত খুলছে অস্ট্রেলিয়া। আগামী নভেম্বর থেকে দেশটিতে বিদেশিদের প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। তবে প্রথম পর্যায়ে অস্ট্রেলীয় নাগরিকরা বিদেশে যাওয়ার সুযোগ পাবেন। পরবর্তীতে বিধিনিষেধ আরও শিথিল হলে তবেই বিদেশিরা দেশটিতে ঢুকতে পারবেন। অবশ্য সীমান্ত খোলার জন্য নির্দিষ্ট কোনো দিনক্ষণ ঘোষণা করেননি অজি প্রধানমন্ত্রী। শুধু জানিয়েছেন, দেশটির ৮০ শতাংশ মানুষকে করোনারোধী টিকা দেওয়া হয়ে গেলেই বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হবে। আর তা হবে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে। এদিকে, বিদেশিদের জন্য সীমান্ত উন্মুক্ত করার প্রক্রিয়া হিসেবে চীনের সিনোভ্যাক ও ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত কোভিশিল্ড টিকার স্বীকৃতি দিয়েছে অস্ট্রেলীয় কর্তৃপক্ষ। দেশটির শীর্ষ ওষুধ নিয়ন্ত্রক থেরাপিউটিক গুডস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মতে, আগত ভ্রমণকারীদের নেওয়া টিকাগুলো ‘স্বীকৃত’ হওয়া উচিত। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ২০২০ সালে সীমান্ত বন্ধ করে দেয় অস্ট্রেলিয়া। এরপর বিদেশ থেকে নিজেদের কিছু নাগরিক ও স্থায়ী বাসিন্দা ছাড়া আর কাউকে ঢুকতে দেয়নি তারা। বের হতে দেওয়া হয়নি দেশের মানুষকেও। যারা অস্ট্রেলিয়া গেছেন, তাদেরও বাধ্যতামূলকভাবে নিজ খরচে হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হয়েছে।
সূত্র: ডয়েচে ভেলে, রয়টার্স, ব্লুমবার্গ

ভাগ