চলতি মাসের শেষ সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্র যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

লোকসমাজ ডেস্ক॥ চলতি মাসের শেষ সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্র যেতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেখানে দেশটির রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি এবং নিউ ইয়র্কে যাওয়ার কথা মোদির। এর মধ্য দিয়ে জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এটাই নরেন্দ্র মোদির প্রথম যুক্তরাষ্ট্র সফর হতে চলেছে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সূত্রে এমন খবর দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, মোদির নির্দিষ্ট সূচি অনুযায়ী, সেপ্টেম্বরের ২২-২৭ তারিখ তিনি যুক্তরাষ্ট্র সফরে যেতে পারেন। সেখানে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে সশরীরে প্রথম সাক্ষাৎ করতে পারেন মোদি। এর আগে তিনবার ভার্চুয়ালি সাক্ষাৎ হয়েছে দুজনেরঃ মার্চে কোয়াড সম্মেলন, এপ্রিলে জলবায়ু পরিবর্তন সম্মেলন এবং জুনে জি-৭ গ্রুপের বৈঠকে। এর মধ্যে জি-৭ গ্রুপের বৈঠকে মোদির সশরীরে উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে সেই সফর বাতিল করতে হয়। এরই মধ্যে আফগানিস্তানে রাজনৈতিক পট পরিবর্তন হয়েছে। সেই পরিস্থিতিতে মোদির যুক্তরাষ্ট্র সফর বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। কারণ দেশটির প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন মোদি। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে সর্বশেষ যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি। সেখানে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারে ‘হাউডি মোদী ইভেন্ট’ আয়োজিত হয়। সেই অনুষ্ঠানেই মোদি ডাক দেন, ‘আব কি বার ট্রাম্প সরকার’। যদিও ট্রাম্প নির্বাচনে হেরে যান। এবারের সফরে ক্ষমতাসীন ডেমোক্র্যাটদের কাছাকাছি যাওয়ার চেষ্টা করবেন মোদি। অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপ হওয়ার পর ডেমোক্র্যাটরা কাশ্মীরে মানবাধিকার ইস্যু নিয়ে সরব হয়েছিলেন। সেই সূত্রে তাদের সঙ্গে দেখা করে কাশ্মীরের উন্নয়নের ছবি নিয়ে কথা বলতে পারেন মোদি।

ভাগ