মরক্কোতে ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূতকে বাড়ি ভাড়া দিচ্ছে না কেউ

লোকসমাজ ডেস্ক॥ উত্তর আফ্রিকার দেশ মরক্কোতে নিয়োগ পাওয়া ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূত ডেভিড গভরিনকে বাড়ি ভাড়া দিচ্ছেন না কেউ। ফলে হোটেলে থেকেই দূতাবাসের কার্যক্রম পরিচালনা করতে হচ্ছে তাকে। প্রায় ছয়মাস ধরে তিনি রাজধানী রাবাতে দূতাবাস অফিসের জন্য বাড়ি খুঁজে যাচ্ছেন। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ডেভিড গভরিনকে মরক্কোতে নিয়োগ দিয়ে পাঠায় ইসরায়েল সরকার। গত বছর চতুর্থ আরব দেশ হিসেবে ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে মরক্কো। এরপর মিশনের প্রধান করে ডেভিড গভরিনকে মরক্কোতে পাঠায় ইসরায়েল। কিন্তু দূতাবাস অফিস পরিচালনার জন্য তাকে কেউ জায়গা ভাড়া দিচ্ছে না। গত সপ্তাহে একটি বাসা ঠিকও করেন ডেভিড গভরিন। কিন্তু পরে ভবন মালিক যখন জানতে পারেন ইসরায়েলি দূতাবাসের জন্য বাসা ভাড়া নেওয়া হচ্ছে, তখন তিনি বাসা ভাড়া দিতে অস্বীকৃতি জানান। গত বছরে চতুর্থ মুসলিম দেশ হিসেবে ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেয় মরক্কো। যার মধ্যস্থতা করে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করা অন্য তিনটি আরব দেশ হলো, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও সুদান। তার আগে ১৯৭৯ ও ১৯৯৪ সালে মাত্র দুটি দেশ মিশর ও জর্ডান ইসরাইলে সঙ্গে শান্তি চুক্তি করে।
সূত্র: আল জাজিরা

ভাগ