প্রতারক রিকশাচালক থেকে সাবধান !

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঈদকে সামনে রেখে যশোরে নকল সোনা প্রতারকচক্র মাঠে নেমেছে। রিকশাচালকের ছদ্মবেশে এরা কৌশলে নকল সোনা যাত্রীদের গছিয়ে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিচ্ছে। এই চক্র সম্পর্কে সতর্ক, সাবধান না হলে সর্বস্বান্ত হতে হবে সাধারণ লোকজনকে।
বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, বহুদিন যশোরে নকল সোনা প্রতারকচক্রের তৎপরতা বন্ধ ছিলো। কিন্তু ঈদকে সামনে রেখে যশোরে ফের তাদের তৎপরতা শুরু হয়েছে। তারা এবার নতুন কৌশলে মাঠে নেমেছে। রিকশাচালকের ছদ্মবেশে চক্রের সদস্যরা তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে বলে তথ্য মিলেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার যশোর শহরে এক নারী এই চক্রের খপ্পরে পড়েছিলেন। কিন্তু তাৎক্ষণিক বুদ্ধির কারণে তিনি রক্ষা পেয়েছেন। সূত্র জানায়, ওই নারীর বাড়ি সদর উপজেলার বারীনগর এলাকায়। তিনি দড়াটানা থেকে একটি রিকশায় ওঠেন নিজ গন্তব্যে যাওয়ার জন্য। ওই রিকশার চালক ছিল প্রতারক চক্রের সদস্য। রিকশাচালক তাকে নানা অজুহাত দেখিয়ে কৌশলে সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ( মোমিন গার্লস স্কুল) পেছনের ফাঁকা রাস্তায় নিয়ে যায়। এ সময় রিকশা থামিয়ে হঠাৎ চালক বলে উঠে, সে রাস্তায় দশ টাকা পড়ে পেয়েছে। সোনার একটি ছোট খণ্ড ওই টাকা দিয়ে মোড়ানো ছিলো। এরই ফাঁকে আগে থেকে সেখানে অবস্থান করা চালকের দুই সহযোগী অবস্থা বুঝে সেখানে ছুটে আসে। তারা তিনজনই এ সময় রিকশাআরোহী নারীকে নকল সোনার খন্ডটি কেনার জন্য জোর অনুরোধ করতে থাকে। কিন্তু রিকশাআরোহী নারী প্রতারকচক্রের খপ্পরে পড়েছেন বুঝতে পেরে তিনি শহরে বসবাসকারী তার এক স্বজনের বাড়িতে তাদের যেতে বলেন। ফলে ধরা পড়ার ভয়ে রিকশাচালকসহ প্রতারকচক্রের সদস্যরা কৌশলে সেখান থেকে সটকে পড়ে।  এ চক্রটি তাদের কার্যসিদ্ধির জন্য শহরের গরীব শাহ মাজার এলাকা, পৌরসভার সামনের সড়ক ও সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সড়ক বেছে নিয়েছে। এ সড়কগুলো সাধারণত ফাকা থাকে।

ভাগ