প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা : চারজনের মৃত্যুদণ্ড

লোকসমাজ ডেস্ক॥ চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ এলাকায় এক প্রবাসীর বাড়িতে ঢুকে স্বর্ণালঙ্কার লুট ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তারকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে চার আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৩ মার্চ) চট্টগ্রাম চতুর্থ মহানগর অতিরিক্ত দায়রা জজ শরীফুল আলম ভূঁইয়া এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন— হাটহাজারী উপজেলার মনসুর, মো. তৈয়ব ওরফে রানা, মো. ইসহাক ও ফটিকছড়ি উপজেলার মো. ইয়াছিন। রায় ঘোষণার সময় ইয়াছিন ছাড়া বাকি তিন আসামি পলাতক ছিল। বিষয়টি নিশ্চিত করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি অ্যাডভোকেট মো. নোমান। তিনি বলেন, ‘২০১৬ সালের ৫ মার্চ বায়েজিদের রৌফাবাদ এলাকায় পারভিন আক্তার নামের এক নারীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়। ঘটনার দু’দিন পর নিহতের স্বামী অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করে। পরে পুলিশ ইয়াছিন ও মো. মনসুরকে গ্রেফতার করে লুট হওয়া স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করে। এর কয়েক দিন পর মো. আবু তৈয়ব ওরফে রানাকেও গ্রেফতার করে পুলিশ। মামলার শুরু থেকে আসামি ইসহাক পলাতক।’ তিনি আরও বলেন, ‘মামলায় আদালত ২০১৭ সালের ৫ মার্চ চার্জ গঠন করে বিচার শুরু করেন। বিচারিক প্রক্রিয়ায় ১৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালতের বিচারক গতকাল রায় ঘোষণা করেন।’

ভাগ