যাক, খেলাটা বোঝে এখানে এমন একজনকে পাওয়া গেল : রোহিত

লোকসমাজ ডেস্ক॥ আহমেদাবাদের মোতেরায় সিরিজের তৃতীয় টেস্টটি নিয়ে আলোচনা চলছে তো চলছেই। ভারতের ১০ উইকেটের বড় জয়। কোথায় স্বাগতিকদের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশংসা হবে, উল্টো হচ্ছে পিচ নিয়ে সমালোচনা। যাতে করে ভারতের জয়টা অনেকটাই কৃতিত্বহীন পড়েছে। পিচ নিয়ে সমালোচনা হওয়ারই কথা। মোতেরায় পাঁচদিনের টেস্টে ভারত বলতে গেলে দেড়দিনেই হারিয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ডকে। ম্যাচে ব্যাটসম্যানদের রীতিমত নাকানি চুবানি খাইয়েছেন স্পিনাররা। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড মাত্র ১১২ রানেই গুটিয়ে যায়।
ভারতের কিছু বলার সুযোগ ছিল, যদি না তারাও ১৪৫ রানে গুটিয়ে যেতো। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে আরও খারাপ দশা হয় ইংল্যান্ডের। ভারতীয় স্পিনারদের ঘূর্ণির সামনে তারা অলআউট হয় ৮১ রানেই। মাত্র ৪৯ রানের টার্গেট পেয়ে বিনা উইকেটেই সেটা পার করে ভারত। ইংল্যান্ডের দুই ইনিংসে ২০ উইকেটের মধ্যে ১৯টিই নিয়েছেন ভারতীয় স্পিনাররা। ভারতও যে ইনিংসে অলআউট হয়েছে, তাতে ৯ উইকেট নেন ইংল্যান্ডের দুই স্পিনার। এর মধ্যে পার্টটাইম অফস্পিনার জো রুটও নেন ৫ উইকেট।
বোঝাই যাচ্ছে, পিচ কতটা স্পিন সহায়ক ও ব্যাটসম্যানদের খেলার ‘অযোগ্য’ ছিল। ম্যাচের পর স্বভাবতই ইংল্যান্ডের সাবেকরা এমন পিচ বানানোয় ধুয়ে দিচ্ছেন ভারতকে। এমনকি খোদ ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংও প্রশ্ন তুলেছেন, দুইদিনে ম্যাচ শেষ হওয়া পিচ টেস্ট ক্রিকেটের জন্য কতটা ভালো উদাহরণ? তবে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি কিংবা সিনিয়র ওপেনিং ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা মানতে রাজি নন পিচের কোনো সমস্যা ছিল। তারা মনে করছেন, দুর্দান্ত খেলা হয়েছে বলেই ম্যাচটা দুইদিনের মধ্যে শেষ হয়েছে। এবার নিজেদের পক্ষের লোক পেলেন তারা, ম্যাচ নিয়ে বিশ্লেষণধর্মী আলোচনা করতে গিয়ে কেভিন পিটারসেন দোষ ধরলেন ব্যাটসম্যানদেরই। ইংল্যান্ডের কিংবদন্তি এই ব্যাটসম্যানের মতে, ভালো ব্যাটিং করলে ম্যাচটা তিনদিন বা চারদিনে যেতে পারতো। এক ইনস্টাগ্রাম ভিডিওতে পিটারসেন বলেন, ‘আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি, দুই দলেরই ব্যাটিং ছিল ভয়াবহ এবং বিভৎস। আমার মনে হয়, যদি তারা নিজেদের কথায় সৎ থাকে, তবে স্বীকার করবে তারা খুব খারাপ ব্যাটিং করেছে।’ পিটারসেন যোগ করেন, ‘৩০টি আউটের মধ্যে ২১টিই ছিল খুব সোজা ডেলিভারিতে। উইকেটে ভয়ংকর কিছুই ছিল না। তাদের দরকার ছিল শুধু ভালো ব্যাটিং করার। ভালো ব্যাটিং করলে ম্যাচটা তিনদিন, এমনকি চারদিনেও যেতে পারতো।’ ইংল্যান্ডের সাবেক ব্যাটসম্যানের এমন কথা খুব পছন্দ হয়েছে রোহিতের। তিনি ওই ভিডিওবার্তাটা শেয়ার করে লিখেছেন, ‘যাক, খেলাটা বোঝে এখানে এমন একজনকে পাওয়া গেল।’

ভাগ