মামলার প্রতিবাদে ঝিনাইদহে সাংবাদিক জনতার মানববন্ধন ও সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ ॥ ঝিনাইদহের সিনিয়র সাংবাদিক আসিফ কাজল ও দৈনিক যুগান্তরের কালীগঞ্জ প্রতিনিধি শাহরিয়ার রহমান সোহাগের বিরুদ্ধে আদালতে মানহানী মামলার অভিযোগ দায়েরের প্রতিবাদে শনিবার মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে জেলার সাংবাদিক ও সাধারণ মানুষ। এদিন সকালে জেলা শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসষ্ট্যান্ডে প্রেরণা-৭১ চত্বরে সাংবাদিক জনতার মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু হয়। দুই ঘন্টাব্যাপী চলা এই কর্মসূচিতে ঝিনাইদহ ছাড়াও হরিণাকুন্ডু, কালীগঞ্জ ও কোটচাঁদপুরে কর্মরত বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক, সাংবাদিকদের সংগঠন ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ গ্রহণ করেন। একই সময় পুলিশ বক্সের সামনে ঝিনাইদহ রিপোর্টার ইউনিটের নেতৃবৃন্দ পৃথকভাবে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। অন্যদিকে মহেশপুর শহরের থানা মোড়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। বিভিন্ন সমাবেশে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে সাংবাদিক জাহিদুর রহমান তারেক, জাহিদুল হক বাবু, ওমর আলী সোহাগ, আব্দুস সামাদ, আব্দুস সালাম, কামাল হোসেন, হাবিব চৌধুরী, জাফিরুল ইসলাম, এম মাহফুজুর রহমান, কোরবান আলী প্রমুখ। সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মীর মধ্যে বক্ত্য দেন সিরাজুল হক, তারেক মাহমুদ জয়, সাফওয়ান আব্দুল্লাহ অনিক, হারুন অর রশিদ, শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।
বক্তারা অবিলম্বে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। উল্লেখ্য, কালীগঞ্জ অগ্রণী ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির ঘটনা নিয়ে পত্রিকায় তথ্য ভিত্তিক সংবাদ প্রকাশিত হলে ঝিনাইদহের সিনিয়র সাংবাদিক আসিফ কাজল ও যুগান্তরের কালীগঞ্জ প্রতিনিধি শাহরিয়ার রহমান সোহাগের বিরুদ্ধে ব্যাংকটির সাময়িক বরখাস্তকৃত ক্যাশ অফিসার আব্দুস সালাম ও চাকরিচ্যুত মাঠকর্মী আজির আলী গত ১৬ নভেম্বর আদালতে মামলার জন্য অভিযোগ দায়ের করেন। তার আগে ব্যাংকটির ম্যানেজার শ্রী শৈলেন বিশ্বাসকেও বরখাস্ত করা হয়েছে। ঋণ জালিয়াতির খবর মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে দায়ী ব্যক্তিরা ব্যাংকের ক্যাশে বিভিন্ন সময় ২৭ লাখ টাকা ফেরৎ দেন। তাছাড়া সাময়িক বরখাস্তকৃত ম্যানেজার শৈলেন বিশ্বাস, ক্যাশ অফিসার আব্দুস সালাম ও চাকরিচ্যুত মাঠকর্মী আজির আলীকে দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ব্যাংকের প্রধান কর্যালয়।

ভাগ