মুক্তি চান পুনম

লোকসমাজ ডেস্ক॥প্রায় দেড় বছর প্রেমের পর স্যাম বম্বকে বিয়ে করেন ভারতের বিতর্কিত মডেল-অভিনেত্রী পুনম পাণ্ডে। কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যে স্বামীর সঙ্গে তার বৈরিতা তৈরি হয়। ইতোমধ্যে স্যামের বিরুদ্ধে সরাসরি শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ এনেছেন এই অভিনেত্রী। পুনম জানান, শুরু থেকেই অত্যাচার করতেন স্যাম। বিয়ে করলে সমস্ত কিছু ঠিক হয়ে যাবে। এমনটা ভেবেই সেপ্টেম্বরের ১১ তারিখ বিয়ে করেছিলেন পুনম। কিন্তু পরিস্থিতি আরও খারাপ হয় গোয়ায় মধুচন্দ্রিমায় যাওয়ার পর। ২৩ সেপ্টেম্বর রাতে অত্যাচার চরমে পৌঁছায়।
পুনমের দাবি, তিনি পুলিশকে ডাকেননি। হোটেলের ঘর থেকে চিৎকার-চেঁচামেচির শব্দ শুনে কর্মীরাই গোয়া পুলিশকে খবর দিয়েছিলেন। স্যাম নাকি নৃশংসভাবে তাকে মারধর করছিলেন। পুনমের মুখের একপাশ ফুলে গিয়েছিল। পরে মেডিক্যাল পরীক্ষার পর পুনম জানতে পারেন স্যামের মারের চোটে তার ব্রেন হেমারেজ হয়ে গিয়েছে। আপাতত ঠিক আছেন বলেই জানিয়েছেন পুনম। কিন্তু তিনি এই স্বল্প সময়ের বিবাহিত জীবন থেকে মুক্তি চান। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, অর্থ এবং সম্পত্তির লোভে পুনম স্যাম বম্বেকে বিয়ে করেছেন। এমন খবরে ব্যথিত পুনম। জানান, তিনি নন বরং স্যাম তার ভিডিও বেচে রোজগার করেন। এখন নাকি পুনমের কাছে অভিযোগ ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য কান্নাকাটিও করছেন।

ভাগ