ব্ল্যাকউডের অর্ধশতকে জয়ের সুবাস পাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

লোকসমাজ ডেস্ক॥ সাউদাম্পটন টেস্টে চতুর্থ দিন শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের লিড ছিল ১৭০ রান। পঞ্চম দিন সকালে আর ২৯ রান যোগ করতে অলআউট ইংলিশরা। ফলে শেষ দিন ২০০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ, প্রথম টেস্ট (পঞ্চম দিন)
ইংল্যান্ড: ২০৪ এবং ৩১৩।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ৩১৮ রান।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২য় ইনিংস: ১৪৩/৪, (চা বিরতি পর্যন্ত)
জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ৬ উইকেট আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৫৭ রান।
প্রথম সেশনের ১৫ ওভারের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩ উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের আশা তৈরি করেছিল স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে রোস্টন চেজ এবং জার্মেইন ব্ল্যাকউডের দারুণ ব্যাটিংয়ে ম্যাচের চিত্র বদলে গেছে। ব্ল্যাকউডের দারুণ এক অর্ধশতকে শেষ সেশনে ব্যাটিংয়ে নামার আগে জয়ের সুবাস পাচ্ছে সফরকারীরা। ২৭ রানে ৩ উইকেট হারানো ক্যারিবিয়ানদের হয়ে চতুর্থ উইকেটে ৭৩ রানের দারুণ এক জুটি গড়েন চেজ-ব্ল্যাকউড। দুইজনেই পাল্লা দিয়ে রান তুলতে থাকেন। তবে এখানে কিছুটা ভাগ্যেরও ছোঁয়া ছিল। জ্যাক ক্রলের মিস ফিল্ডিংয়ে রান আউট হওয়া থেকে বেঁচে যান চেজ। আবার বেসের এবং স্টোকসের বলে দুইবার ক্যাচ উঠিয়েও বেঁচে যান ব্ল্যাকউড।
দলীয় ১০০ রানের মাথায় আর্চারের উঠে যাওয়া বল ঠেকাতে গিয়ে ক্যাচ দিয়ে ফিরতে হয় চেজকে। বাটলারের গ্লাভসবন্দি হওয়ার আগে ৩৭ রান করেন চেজ। ক্যারিবিয়ানদের চার উইকেটের তিনটি নিলেন আর্চার। ব্যাটিং পার্টনারকে হারিয়ে কিছুটা আগ্রাসি হয়ে ওঠেন ব্ল্যাকউড। প্রায় সব বলেই রান বের করার চেষ্টা করতে থাকেন এই ক্রিকেটার। ৮৯ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ফিফটি করেন এই ক্যারিবিয়ান। চা বিরতির আগে করে ফেলেছেন ৬৫ রান। এদিকে তাকে দারুণ সঙ্গ দিচ্ছেন প্রথম ইনিংসে ক্যারিবিয়ানদের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করা ডোরিচ। তিনি আছেন ১৫ রানে অপরাজিত। এই দুই ব্যাটসম্যান ৪৩ রানের জুটি গড়ে সাউদাম্পটন টেস্টে জয়ের দিকে এগিয়ে নিচ্ছেন দলকে।
পেসারদের তাণ্ডবে প্রথম সেশন শেষে এগিয়ে ইংল্যান্ড
সাউদাম্পটন টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের জন্য ২০০ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে বিপর্যয়ে সফরকারি উইন্ডিজ। ১৫ ওভারের মধ্যে ৩৫ রান তুলতেই ৩ উইকেট নেই ক্যারিবিয়ানদের। আর ইংল্যান্ডের পক্ষে আঘাত হেনেছেন দুই পেসার আর্চার এবং উড। ব্যাটিংয়ে নেমে উইন্ডিজ শিবির শুরুতে হারায় জন ক্যাম্পবেলকে। তবে আউট হয়ে নয় আর্চারের বলে পায়ের আঙুলে আঘাত পেয়ে মাঠ ছাড়েন এই বাঁহাতি ওপেনার। প্রথম ইনিংসে অর্ধশতক হাঁকানো ব্র্যাথওয়েট এবার সফল হতে পারেননি।
আর্চারের বল ব্যাটের নিচের কানায় লেগে স্টাম্পে আঘাত হানলে দলীয় ৭ রানের মাথায় ৪ করে ফেরেন ব্র্যাথওয়েট। নিজের পরের ওভারে আর্চার ফেরান চারে নামা ব্রুকসকে। এলবিডব্লিউতে আউট হওয়া ব্রুকস রানের খাতা খুলতেই পারেননি। তৃতীয় উইকেট জুটিতে চেজকে নিয়ে ২০ রান যোগ করেন হোপ। তবে উডের দারুণ এক ইয়র্কারে স্টাম্প হারিয়ে বসেন ৯ রান করা হোপ। দলীয় ২৭ রানে ৩ উইকেট হারানো ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে এখন লড়ে যাচ্ছেন চেজ এবং ব্ল্যাকউড। বাকী দুই সেশনে ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য দরকার ৭ উইকেট আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রয়োজন আরও ১৬৫ রান।
শেষ দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২০০ রানের লক্ষ্য দিলো ইংল্যান্ড
আগের দিনের ২৮৪/৮ স্কোর নিয়ে পঞ্চম দিন শুরু করে ইংল্যান্ডের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান মার্ক উড (১) এবং জোফরা আর্চার (৫)। উড স্থির থাকলেও আর্চার ব্যাট চালিয়ে খেলতে থাকে। আগের দিনের রানের সঙ্গে দলীয় স্কোরে মাত্র ১৯ রান যোগ করতেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন উড। গ্যাব্রিয়েলের বলে জায়গা করে নিয়ে মারতে গিয়ে ডোরিচের হাতে ২ রানে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই টেল এন্ডার। ইংল্যান্ডের লিড তখন ১৮৯। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামা জেমস অ্যান্ডারসনকে নিয়ে আরও ১০ রানের জুটি গড়তেই আউট হয়ে যান আর্চার। এবারও আঘাত হানেন গ্যাব্রিয়েল। ক্যারিয়ারে ষষ্ঠবারের মতো পাঁচ উইকেট তোলার পথে আর্চারকে (২৩) ডোরিচের হাতে তালুবন্দি করান গ্যাব্রিয়েল। ৩২ বছর বয়সী এই পেসার ৭৫ রানে ৫ উইকেট তুলে নেন। সাউদাম্পটনের অ্যাজেস রোজ বোলে প্রথম টেস্ট জয়ের জন্য নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে দুইশ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সম্প্রতি আয়ারল্যান্ডকে চতুর্থ ইনিংসে ১৮২ রানের লক্ষ্য দিয়ে জয় তুলে নেওয়া ইংল্যান্ড কি আটকাতে পারবে সফরকারি ওয়েস্ট ইন্ডিজকে?

ভাগ