নড়াইলে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

0

নড়াইল সংবাদদাতা॥ নড়াইলে স্ত্রী মমতাজ বেগমকে হত্যার দায়ে স্বামী মো. হেদায়েত শেখের (৫৫) মৃত্যুদ-াদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
গতকাল সোমবার দুপুরে নড়াইলের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. কেরামত আলি এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় দুজনকে খালাস দেওয়া হয়।
মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত হেদায়েত শেখ জেলার লোহাগড়া থানার পদবিলা গ্রামের মৃত গোলাম রব্বানীর ছেলে। আর খালাসপ্রাপ্তরা হলেন- মো. খলিল শেখ ও আনজুয়ারা বেগম। তবে হেদায়েত শেখ এখনো পলাতক আছেন।
আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট এমদাদুল ইসলাম ইমদাদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, হেদায়েত শেখের প্রথম স্ত্রী মমতাজ বেগম। পরে আনজুয়ারা বেগম নামের আরেকজনকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন তিনি। এরপর থেকে আনজুয়ারা তার সতীনকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিলেন।
২০১২ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে ছেলে রবিউল ইসলামসহ তার মা মমতাজ রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে উঠে রবিউল তার মাকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। পরে পদবিলা বিলের মধ্যে আসাদুজ্জামানের জমির মধ্যে মমতাজ বেগমের গলা কাটা মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় রবিউল বাদী হযে লোহাগড়া থানায় মামলা করেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নিহতের স্বামী হেদায়েত শেখ, খলিল শেখ ও আনজুয়ারা বেগমকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ১৪ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

Lab Scan