কালীগঞ্জে অগ্রণী ব্যাংকে ঋণ জালিয়াতি মামলায় দুইজন কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ॥ অগ্রণী ব্যাংকে জাল কাগজপত্র তৈরি ও মৃত ব্যক্তিদের নামে ভুয়া ঋণ তুলে প্রায় দুই কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় সাময়িক বরখাস্তকৃত ব্যাংক কর্মকর্তা আব্দুস সালাম ও কর্মচারী আজির আলীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ঝিনাইদহ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আল আমিন মাতুব্বর তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান। আব্দুস সালাম ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার ভেড়াখালী গ্রামের আব্দুল গনি বিশ্বাসের ছেলে। অন্যদিকে আজির আলী কালীগঞ্জ উপজেলার কাশিপুর গ্রামের আব্দুল বারিক মন্ডলের ছেলে। ঝিনাইদহ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের পেশকার মানিরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আব্দুস সালাম ও আজির আলী ওই মামলায় উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তার জামিনে ছিলেন। বৃহস্পতিবার আসামিদের জামিন মেয়াদ শেষ হলে তারা ঝিনাইদহ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে স্থায়ী জামিনের আবেদন করেন। আদালতের বিচারক তাদের জামিন আবেদন বাতিল করে কারাগারে পাঠিয়ে দেন। অগ্রণী ব্যাংক কালীগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক শৈলেন বিশ্বাস, ক্যাশ অফিসার আব্দুস সালাম ও মাঠ কর্মী আজির আলী গ্রাহকের নামে ভুয়া ঋণ দেখিয়ে প্রায় দুই কোটি টাকা আত্মসাত করেন। এ বিষয়ে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের মনোহরপুর গ্রামের ইন্তাজ আলী, একই উপজেলার পুকুরিয়া গ্রামের আইনুল ইসলাম ও বদর উদ্দীন আদালতে মামলা দায়ের করেন।