মিডিয়ার অনেকেই ক্যারিয়ার হারানোর ভয় দেখিয়েছিলেন: পূর্ণিমা

লোকসমাজ ডেস্ক॥ জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ইত্যাদিতে ‘একদিন পাখি উড়ে যাবে যে আকাশে…’ গানটি গেয়ে বেশ জনপ্রিয়তা পান শিল্পী আকবর। এরপর নায়িকা পূর্ণিমার বিপরীতে ‘তোমার হাতপাখার বাতাসে, প্রাণ জুড়িয়ে আসে…’ গানটির মিউজিক ভিডিও করে রাতারাতি নিজের জায়গা শক্ত করেন তিনি। অবশ্য এর আগেই আকবর বেশি পরিচিতি পান কিশোর কুমারের সেই গানটি দিয়েই।
এই জনপ্রিয়তার পেছনে আরেকটি কারণ আছে, তা হলো চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। পূর্ণিমার গ্ল্যামার তখন এ দেশের উঠতি বয়সীদের বিমোহিত করে রেখেছিল। আর ওই গানের মডেল হয়ে আকবর-পূর্ণিমা বেশ চর্চিত বিষয় হয়ে উঠে।
এদিকে ইত্যাদিখ্যাত গায়ক আকবরের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন জনপ্রিয় নায়িকা পূর্ণিমা। স্মৃতিচারণ করলেন তাকে নিয়ে। দিলেন অবাক করা তথ্য।
রিকশাচালক থেকে গায়ক, তারপর তার সঙ্গে প্রথম মিউজিক ভিডিও করা নিয়ে পূর্ণিমা বলেন, ‘বাংলাদেশের সব থেকে জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’। দেখেননি এমন কেউ নেই। তাছাড়া হানিফ সংকেত ভাই আমার খুব পছন্দের মানুষ। তার যে কোন কাজ আমি করি। যেহেতু আকবার প্রথম ‘ইত্যাদি’র মাধ্যমে গান করে জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। সেখানে তার দ্বিতীয় গানের মিউজিক ভিডিও আমাকে নিয়ে করার কথা ভাবেন। আমি আর না করিনি। এই কাজটি করার জন্য মিডিয়ার অনেকেই আমার ক্যারিয়ার হারানোর ভয় দেখিয়েছিলেন। অনেকে আবার সাধুবাদও জানিয়েছেন।
গায়ক আকবর বেড়ে ওঠেন যশোরে। একসময় যশোর শহরের অলিগলিতে রিকশা চালাতেন আকবর। সেখানে টুকটাক গান করতেন। সে কারণে স্টেজ শো হলে ডাক পেতেন। ২০০৩ সালে যশোর এম এম কলেজের একটি অনুষ্ঠানে গান গেয়েছিলেন আকবর। সেই অনুষ্ঠানে বাগেরহাটের এক ভদ্রলোক আকবরের গান শুনে মুগ্ধ হয়েছিলেন। তারপর তিনি জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’তে চিঠি লেখেন আকবরকে নিয়ে। এরপর ইত্যাদির টিম আকবরের সঙ্গে যোগাযোগ করে।
[ দেশ রূপান্তর অনলাইন থেকে সংকলিত]