ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ধর্মঘটে যাচ্ছে ব্রিটেনের নার্সরা

 

বেতন বাড়ানোর দাবিতে কয়েক হাজার ব্রিটিশ নার্স ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো ধর্মঘটে যাচ্ছে। ব্রিটেনে চলমান তীব্র অর্থনৈতিক সঙ্কটের সময় এই ধর্মঘট নতুন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের ওপর নতুন চাপ যোগ করবে। ব্রিটেন জুড়ে রাষ্ট্রচালিত ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস (এনএইচএস) নিয়োগকর্তাদের সংখ্যাগরিষ্ঠ নার্সরা ধর্মঘটের পক্ষে ভোট দিয়েছেন। রয়্যাল কলেজ অফ নার্সিং (আরসিএন) বলেছে, এটি এমন পদক্ষেপ যা ইতিমধ্যেই চাপে থাকা স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় বড় ব্যাঘাতের হুমকি তৈরি করবে। ১০৬ বছরের পুরোনো প্রতিষ্ঠান আরসিএন এর ৩ লাখেরও বেশি সদস্য রয়েছে। ব্রিটেনের নার্সদের অভিযোগ, গত ১০ বছরে জিনিস-পত্রের দাম বেড়ে চলায় তাদের বেতন ভাতা ২০% কমে গেছে। তারা বর্তমান মূল্যাস্ফীতির চেয়ে ৫% বেশি বেতন বাড়ানোর দাবি তুলেছেন। কিন্তু সরকার বলছে এতে, অন্তত ৯ বিলিয়ন পাউন্ড বাড়তি খরচ করতে হবে, যা এই মুহূর্তে সম্ভব নয়।
নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বেড়ে ব্রিটেনে মূল্যস্ফীতি ১০ শতাংশে পৌঁছেছে। যার ফলে দেশটির বিভিন্ন শিল্পে সম্প্রতি অস্থিরতা দেখা দিয়েছে।