যশোরে জেলি পুশকৃত ট্রাকভর্তি চিংড়ি জব্দের পর ধ্বংস, ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাতক্ষীরার মাম্পি অ্যান্ড প্রান্ত ফিস নামে একটি প্রতিষ্ঠান ট্রাকভর্তি জেলি পুশকৃত চিংড়ি ঢাকায় নিয়ে যাবার সময় যশোরে র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে যশোরের আরবপুর থেকে ট্রাকভর্তি জেলি পুশকৃত চিংড়ি জব্দ করা হয়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান মালিককে ১ লাখ টাকা অর্থদ-ের পাশাপাশি জব্দকৃত চিংড়ি ধ্বংস করা হয়েছে।
র‌্যাব-৬ সিপিসি-৩ যশোর ক্যাম্পের এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, তারা গোপন সূত্রে খবর পায়, জেলি পুশকৃত চিংড়ি বাজারজাতকরণের জন্য ট্রাকে করে সাতক্ষীরা থেকে যশোর হয়ে ঢাকার যাত্রাবাড়ি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এ খবর পেয়ে রাত সোয়া সাতটার দিকে র‌্যাব-৬ সিপিসি-৩ যশোর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার এম নাজিউর রহমান ও স্কোয়াড কমান্ডার এএসপি এইচ এম শফিকুর রহমান এবং সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাইদুর রহমান রেজার সমন্বয়ে গঠিত একটি টিম আরবপুর সড়কে অস্থায়ী চেকপোস্ট বসিয়ে ট্রাকটি (যশোর-ট-১১-৩২২৩) থামানো হয়। পরে পরীক্ষা করে ট্রাকে থাকা ১৬টি ককসিটে চিংড়িতে জেলি পুশ করার প্রমাণ পাওয়া যায়। এই অপরাধে চিংড়ির মালিক সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার যুগীবাছী গ্রামের বাসিন্দা রনজিৎ মন্ডলকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ১ লাখ টাকা অর্থদ- প্রদান করা হয়। রনজিৎ মন্ডল স্থানীয় মাম্পি অ্যান্ড প্রান্ত ফিসের স্বত্বাধিকারী। সূত্র জানায়, পরে জব্দকৃত ২ লাখ টাকা মূল্যের ২৪০ কেজি জেলি পুশকৃত চিংড়ি ধ্বংস করা হয়।

 

 

Lab Scan
ভাগ