সাতক্ষীরায় এক ঘের ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার, হত্যার অভিযোগ পরিবারের

 

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা ॥ সাতক্ষীরার আশাশুনিতে সালাম সরদার নামের এক চিংড়ি ঘের ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার লাশটি উদ্ধার করা হয়। তবে তার পা মাটিতে স্পর্শ ছিল। স্থানীয়দের ধারণা, তাকে শ^াসরোধে হত্যার পর লাশ গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।
সালাম সরদার (৬০) আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা গ্রামের মৃত ছুরমান আলী সরদারের বড় ছেলে।
সালাম সরদারের ভাই বাবু সরদার জানান, তার ভাই ৩০ বছর আগে শ্রীউলা থেকে চলে গিয়ে এক কিলোমিটার দূরে কালিগঞ্জ উপজেলার ইউছুফপুর গ্রামে বাড়ি করে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। সেখানে তিনি একটি মুদি দোকানও পরিচালনার পাশাপাশি ঘের ব্যবসা করেন। বৃহস্পতিবার সকালে বাবু সরদার খবর পান, শ্রীউলা গ্রামের পুকুরের পাশে একটি গাছের ডালে বড় ভাই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। খবর পেয়ে তিনি পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। তবে ভাইয়ের পা মাটিতে স্পর্শ ছিল। এছাড়া তার ভাই রাতে বের হয়ে আর বাড়িতে ফেরেননি। তিনি বলেন, গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করলে ভাইয়ের পা মাটিতে থাকার কথা না। পাশাপাশি তার জিহ্বা মুখের মধ্যে থাকবে। তার ভাইকে শ^াসরোধ করে হত্যা করে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
আশাশুনি থানা পুলিশের ওসি মমিনুল ইসলাম জানান, সালাম সরদারের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে, এটি হত্যা না আত্মহত্যা সেটি ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যুর মামলা করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

Lab Scan
ভাগ