ভুক্তভোগীদের দাবি ষড়যন্ত্র শরণখোলায় প্রবাসীর বাড়ি থেকে হরিণের চামড়া ও শিং জব্দ

 

শরণখোলা (বাগেরহাট) সংবাদদাতা ॥ বাগেরহাটের শরণখোলায় সুন্দরবন সংলগ্ন একটি গ্রাম থেকে দুটি হরিণের চামড়া ও দুটি শিং জব্দ করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোররাতে শরণখোলা উপজেলার উত্তর রাজাপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসী আবুল বাশার খানের নির্মাণাধীন একটি বাড়ি থেকে এগুলো জব্দ করা হয়। প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে একটি চক্র ওই চামড়া ও শিং রেখেছে বলে ভুক্তভোগী পরিবার দাবি করেছে।
বাগেরহাট গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক সুরেশ হালদার জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের একটি দল শরণখোলার উত্তর রাজাপুরের নির্মাণাধীন ওই বাড়ি থেকে হরিণের দুটি চামড়া ও দুটি শিং জব্দ করে। তবে উদ্ধারের সময় মনে হয়েছে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য এটি একটি ষড়যন্ত্র। এ কারণে ওই সোর্সকে আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে।
আবুল বাশার খানের ভাই রহিম খান জানান, ‘আমরা তিন ভাই সৌদি প্রবাসী। প্রতিবেশী সুলতান মাস্টারের ছেলে মিরাজ খানকে আমরা সৌদি নিয়ে যাই। সেখানে নেয়ার পরে আকামা নিয়ে তাদের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এরই জের হিসেবে আমাদের ফাঁসাতে এই ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।’
সংশ্লিষ্ট ইউপি মেম্বার হেলাল সর্দার জানান, দু’পক্ষের বিরোধ নিয়ে তিনি সালিশ বৈঠক করেছেন। তবে হরিণের চামড়া জব্দের বিষয়টি সন্দেহজনক।

Lab Scan