চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের ১০ম বর্ষপূর্তি পালন যশোরে

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোরে চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের ১০ম বর্ষপূর্তি পালন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ উপলক্ষে কেক কাটেন যশোরের জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান ও পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার। অনুষ্ঠানে ইতিপূর্বে সাংবাদিকতা পেশায় ছিলেন কিন্তু বর্তমানে সরকারের বিভিন্ন দফতরে দক্ষতা ও সুনামের সাথে কর্মরত আছেন এমন ৫ জনকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।
সংবর্ধিতরা হলেন-যশোরের পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সায়েমুজ্জামান, ইউসিবি ব্যাংকের জোনাল হেড ফকির আক্তারুল আলম, ইসলামিক ফাউন্ডেশন যশোরের উপ-পরিচালক বেলাল বিন কাশেম ও ভোক্তা অধিকার যশোরের সহকারি পরিচালক খালিদ বিন ওয়ালিদ। তারা প্রত্যেকেই সরকারি চাকুরিতে যোগদানের আগে পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান বলেন, দেশের উন্নয়নে মিডিয়া-সংবাদপত্রের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সমাজের নানা অসঙ্গতি তুলে ধরাই কেবল সংবাদমাধ্যমের কাজ নয়, বরং তা থেকে উত্তরণেও পথ দেখায় তারা। তিনি বলেন, মানুষের কল্যাণে, সোনার বাংলা গড়তে আমাদের সকলকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। অনুসন্ধানমূলক সংবাদ পরিবেশনায় টেলিভিশনটি ইতিমধ্যে জনপ্রিয়তা পেয়েছে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার বলেন, ২৪ ঘন্টা সংবাদমাধ্যম চ্যানেলটি শুরু থেকেই দর্শকদের মন জয় করেছে। গণমানুষের প্রত্যাশা পূরণে চ্যালেনটি আস্থার সংবাদ মাধ্যম হিসাবে সুপরিচিতি পেয়েছে। আগামীতেও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনায় চ্যানেলটির যাত্রা অবিচল থাকবে বলে তিনি প্রত্যাশা করেন।
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন যশোরের জৈষ্ঠ্য সাংবাদিক মুক্তিযোদ্ধা রুকুন উদ্ দ্দৌলা, যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রেসক্লাব যশোরের যুগ্ম সম্পাদক মিলন রহমান। অনুষ্ঠানকে ঘিরে সাজানো হয় প্রেসক্লাব মিলনায়তন। শুভানুধ্যায়ীদের উপস্থিতি ছিলো চোখে পড়ার মত। কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় হল রুম। বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দ শুভেচ্ছা জানাতে আসেন চ্যানেল টুয়েন্টিফোর পরিবারকে।

Lab Scan
ভাগ