রিভার্স সুইপ শট খেলা বন্ধ করবেন না মুশফিক

লোকসমাজ ডেস্ক॥ রিভার্স সুইপ শট খেলা বন্ধ করবেন না বলে আবারো স্পষ্ট জানিয়েছেন বাংলাদেশের সিনিয়র ব্যাটার মুশফিকুর রহিম।
দলের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে রিভার্স সুইপ খেলে আউট হবার বহু রেকর্ড আছে মুশফিকের। আর তার আউটে বিপদেও পড়েছে দল। তবে নিজের এই প্রিয় শট খেলা ছাড়বেন না দেশের হয়ে টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম পাঁচ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করা মুশফিক।
বুধবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের চতুর্থ দিন প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে বড় ফরম্যাটে ৫ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেন মুশফিক।
টেস্ট ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরির ইনিংস খেলে ৫ হাজার রান পূর্ণ করেন মুশি। তবে সেঞ্চুরির পর বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি তিনি।
শ্রীলঙ্কার বাঁ-স্পিনার লাসিথ মালিঙ্গার বলে সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হন মুশফিক।
গতকাল সুইপ শটে আউট হলে আবারো এই শট নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।সবশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তার রিভার্স সুইপের জন্যই সমালোচনার ঝড় উঠেছিল। দেশের মাটিতে চট্টগ্রাম টেস্টের চতুর্থ দিন শেষে আবারো উঠে আসে সেই আলোচনা।
দিন শেষে মুশফিক বলেন, ‘আমি আপনাকে নিশ্চিত করতে পারি, এটি আমার প্রিয় শট। একই সময়ে এটি একটি বড় ঝুঁকিপূর্ণ শট। তবুও, ভবিষ্যতে এই শট খেলা বন্ধ করবো না আমি।’
তিনি আরো বলেন, ‘এই শট উইকেট কেমন তার ওপর নির্ভর করে। এমন উইকেটে এই শট খেলার প্রশ্নই আসে না। কারণ এখানে রক্ষণাত্মকভাবে লড়াই করে টিকে থাকতে হয়। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে আমরা যে উইকেট পেয়েছি, এটি খুবই ভালো উইকেট এবং ব্যাটিং-বান্ধব। আপনি তুমি এখানে ভালো ডিফেন্স করেন, তবে সোজা ব্যাটে খেলেতে হবে, অন্য শট খেলতে হবে না।’
২০২০ সালের পর প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পান মুশফিক। তার সর্বশেষ সেঞ্চুরিটি ছিল ডাবল। মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে করেছিলেন। সেটি ছিল তার ক্যারিয়ারের তৃতীয় ডাবল-সেঞ্চুরি।
২৭ মাস এবং ১৮ ইনিংস পর এমন সেঞ্চুরি পেয়ে খুশি মুশফিক। তবে একই সাথে সবাইকে মনে করিয়ে দিয়ে মুশফিক জানান, সর্বশেষ দু’টি ডাবল সেঞ্চুরির ইনিংসে সফলভাবে রিভার্স সুইপ শট খেলেছিলেন।
তিনি বলেন, ‘আমার শেষ দু’টি ডাবল সেঞ্চুরিতে সফলভাবে রিভার্স সুইপ শট খেলেছি। যদি আপনার কাছে সেই ডাবল সেঞ্চুরির ভিডিও থাকে, তবে তা চালিয়ে দেখতে পারেন এবং তিন বা চারটি রিভার্স সুইপ শট খেলতে দেখবেন আমাকে।’
২০১৪ সালের পর রিভার্স সুইপ শট খেলতে গিয়ে দু’বার আউট হয়েছেন মুশফিক। প্রথমটি গেল বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এবং সম্প্রতি পোর্ট এলিজাবেথে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পোর্ট এলিজাবেথে সেই আউটটি সমালোচনার জন্ম দিয়েছে, কারণ তার আউটের পরই বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নেমেছিল।
সূত্র : বাসস

Lab Scan
ভাগ