মাগুরায় বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশের হামলা : আহত ৫, আটক ৪

 

 

মাগুরা সংবাদদাতা ॥ বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে মাগুরা জেলা বিএনপির প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশ হামলা চালিয়েছে।
রবিবার বেলা ১১টায় মাগুরা শহরের ইসলামপুর পাড়াস্থ বিএনপির কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু হয়। শান্তিপূর্ণ সমাবেশে পুলিশ বিনা উস্কানিতে প্রধান অতিথি জয়নুল আবেদিন ফারুকের বক্তব্য প্রদান কালে মাইক্রোফোন কেড়ে নিলে দলীয় নেতাকর্মীরা বাধা দেন। এসময় পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করলে চেয়ার ছুঁড়ে পুলিশকে প্রতিহত করার চেষ্টা করা হয়। পুলিশের লাঠিচার্জে নিমিষে সমাবেশস্থল ত্যাগ করে শহরে মিছিল বের করে বিএনপি। মিছিলটি শহরের ভায়নার মোড় এলাকায় পৌছলে পুলিশ সেখানে পেছন থেকে লাঠিচার্জ করে ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুর রহিম,রাকিব,লুৎফর ও মামুনকে আটক করে ভ্যানে তুলে নিয়ে যায়।
সংঘর্ষে জেলা যুবদলের সভাপতি ওয়াসিকুর রহমান কল্লোল, ও স্বেচ্ছাসেবক দলের সাইফুল ইসলাম রানা, ফিরোজ মৃধা,খায়রুল ও সজিব পুলিশের লাঠিচার্জে গুরুতর আহত হয়েছেন বলে দাবি করেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আলী আহমেদ। গুরুতর আহত যুবদলের সভাপতি ওয়াসিকুর রহমান কল্লোলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে বলে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়।
সমাবেশস্থল ত্যাগ করে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে প্রধান অতিথি বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবেক সংসদ সদস্য জয়নুল আবেদিন ফারুক জানান, পুলিশের অনুমতি নিয়ে মাইক ব্যবহার করে তিনি যখন বক্তব্য শুরু করেন ঠিক তখনই পুলিশ মাইক বন্ধ করে লাঠিচার্জ করে। তিনি তার প্রতিবাদ জানান। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিন জানান, পুলিশ সমাবেশে কোন লাঠিচার্জ করেনি।
মিছিল থেকে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

 

Lab Scan
ভাগ