খাবারের লোভ দেখিয়ে কেশবপুরে শিশু ধর্ষণ

 

স্টাফ রিপোর্টার,কেশবপুর (যশোর)॥ যশোরের কেশবপুরে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে ৮ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। শিশুর অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরণ হওয়ায় তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। ধর্ষককে আটক করতে পারেনি পুলিশ।
এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার কালিয়ারই গ্রামের ঘোলপুকুর পাড়ার গোলাপ খার ছেলে চা বিক্রেতা আজিবার রহমান (৪০) গত ১৩ মে বেলা ১১ টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যায়। এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে সে পাশের বাড়ির এক শিশুকে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে ঘরের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণ করে । শিশুটির কান্নার আওয়াজে এলাকাবাসী ছুটে গেলে আজিবার পালিয়ে যায়। এ সময় প্রচুর রক্তক্ষরণের কারণে স্বজনরা শিশুটিকে উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। কিন্তু তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সন্ধ্যায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এলাকার মেম্বার আলমগীর হোসেন বলেন, শিশুটির মা ঢাকার একটি গার্মেন্টসে শ্রমিকের কাজ করতেন। ২/৩ মাস আগে বাড়িতে এসেছেন।
এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার উপপরিদর্শক মিজানুর রহমান বলেন, শিশু ধর্ষণের ঘটনায় আজিবারকে আসামি করে গত ১৪ মে থানায় মামলা হয়েছে। যার নং-০৮। আসামি আটকের চেষ্টা চলছে।

Lab Scan
ভাগ