কাঁচা মরিচের গুণ

লোকসমাজ ডেস্ক॥ মরিচ বা কাঁচা লঙ্কা মসলা হিসেবে ঝাল স্বাদের জন্য রান্নায় ব্যবহার করা হলেও এর রয়েছে অনেক উপকারিতা। এটি ঔষধি হিসেবেও ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
কাঁচা মরিচ খেলে পাওয়া যায় অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা-
১. হজমে সহায়ক: কাঁচা মরিচে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অন্যান্য কেমিক্যাল যা হজমশক্তি বাড়ায়। পেটের সমস্যা দূর করে, গ্যাসের যন্ত্রণা কমায় এবং ডায়রিয়া থেকে মুক্তি দেয় এবং প্রাকৃতিকভাবে পেট মোচড়ানো সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
২. হার্টের সুস্থতায়: এটি হার্টের রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে। রক্তে কোলেস্টরলের মাত্রা কমায়। এটি রক্ত প্রবাহ স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে।
৩. হাড়ের জোড়ায় ব্যথা থেকে মুক্তি: মরিচে রয়েছে এমন শক্তিশালী উপাদান যা হাড়ের জোড়ায় ব্যথানাশকে সহায়তা করে।
৪. হজমক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়: ঝাল মরিচ শরীরে তাপ উৎপন্ন করে হজমক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়। এটি শক্তি ব্যবহার করে এবং অতিরিক্ত ক্যালরি পোড়ায়। সকালের নাশতায় ঝাল মরিচ খেলে সারা দিন ক্ষুধা নিয়ন্ত্রণে থাকে। ফলে ওজন কমাতে সহায়ক হয়।
৫. ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়: ঝাল মরিচে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি প্রদাহ উপাদান। গবেষণায় দেখা গেছে, এই উপাদানগুলো ক্যানসার প্রতিরোধে সহায়ক। এটি প্রোস্টেট ক্যানসারের কোষ বাড়তে দেয় না।
এছাড়্ওা এটি ব্রেস্ট, অগ্ন্যাশয় ও মূত্রথলিতে ক্যানসার প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।
৬. ঠান্ডা, কাশি প্রতিরোধে: ঝাল মরিচে রয়েছে প্রচুর বেটা ক্যারোটিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান যা রোগপ্রতিরোধ সিস্টেমকে ঠিক রাখে এবং ঠান্ডা কাশি ও ঠান্ডাজনিত ফ্লু থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে।
৭. নিশ্বাসের দুর্গন্ধ প্রতিরোধে: ঝাল মরিচ খেলে নিশ্বাসের দুর্গন্ধ কমাতে সহায়তা করে।
৮. অ্যালার্জি প্রতিরোধে: ঝাল মরিচে থাকা অ্যান্টি-প্রদাহ উপাদান অ্যালার্জি প্রতিরোধ করে এবং অ্যালার্জির উপসর্গ প্রতিরোধে সহায়তা করে। [সংকলিত]

Lab Scan
ভাগ