স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া দ্বিতীয় বিয়ের অপরাধে কারাদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যশোরে স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া দ্বিতীয় বিয়ের অপরাধে রাসেল কবির নামে এক ব্যক্তিকে ৬ মাসের কারাদ- দিয়েছেন আদালত। গত বুধবার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক আরমান হোসেন এই রায় প্রদান করেন। সাজাপ্রাপ্ত রাসেল কবির চৌগাছার মশিউর নগর গ্রামের মিলন দফাদারের ছেলে।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ৮ এপ্রিল যশোর সদর উপজেলার নুরপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের মেয়ে ফাতেমা খাতুনের সাথে আসামি রাসেলের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ফাতেমার পিতা গরু বিক্রি করে আসামি রাসেলকে ৫০ হাজার টাকা দেন। এরপর রাসেল বিভিন্ন সময় দেড় লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে ফাতেমার ওপর চাপ সৃষ্টি করতেন। এরই মধ্যে বিদেশে যাওয়ার কথা বলে রাসেল শ্বশুরের কাছ থেকে দেড় লাখ টাকা ধার নিয়ে আর পরিশোধ করেননি। কিন্তু তিনি যৌতুকের টাকার জন্য নানা অজুহাতে স্ত্রীর ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতে থাকেন। এক পর্যায়ে দুই সন্তানসহ ফাতেমাকে পিতার বাড়ি তাড়িয়ে দেন রাসেল। পরে তিনি স্ত্রীর অনুমতি না নিয়ে ২০১৯ সালের ৬ জুন রিনা খাতুন নামে এক নারীকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিষয়টি জানতে পেরে ফাতেমা মুসলিম স্ত্রীর সম্মতি ছাড়া বহু বিবাহ রোধ আইনে আদালতে মামলা করেন। এ মামলায় আসামি রাসেলের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত রাসেল আদালতে উপস্থিত ছিলেন।