হুইল চেয়ারের অভাবে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে মিমের লেখাপড়া

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা ॥ মহেশপুরে দুই পা অচল আফসানা মিমের (১৮) কলেজে যাতায়াতে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে দারিদ্র্য। বাড়ি থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে কলেজে যানবাহনে যাতায়াতের খরচ জোগাতে পারছে না তার দরিদ্র পিতা। পিতা মমিনুর রহমান তার মেয়ের জন্যে একটি ব্যাটারিচালিত হুইল চেয়ারের আবেদন করেও সরকারি-বেসরকারি কোনো জায়গা থেকে সাড়া পাননি। উপজেলার সামন্তা পটিপাড়া গ্রামের প্রতিবন্ধী মেয়ে মেধাবী কলেজছাত্রী আফসানা মিমকে হাঁটুগেড়ে হাতে ভর করে অতিকষ্টে চলাচল করতে হয়। মায়ের সহযোগিতায় গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয় শেষ করে সামন্তা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ২০২১ সালে এসএসসি পাশ করে। আফসানা মিম জানায়, সে জন্ম থেকে প্রতিবন্ধী। বর্তমানে সে ভৈরবা শহিদুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। কলেজ থেকে তার বাড়ি ১০ কিলোমিটার দূরে। বিভিন্ন যানবাহনে আসতে অনেক টাকা খরচ হয়, যা তার দরিদ্র পরিবারে পক্ষে দেওয়া সম্ভব না। তার ইচ্ছা লেখাপড়া শিখে তার পরিবার ও দেশের জন্য স্বাভাবিক এক নারীর পক্ষে যা সম্ভব তা সেও করতে চায়। কিন্তু বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে দরিদ্র পরিবার। ব্যাটারিচালিত হুইল চেয়ার কেনা তার পরিবারের পক্ষে আদৌ সম্ভব না। ইতোপূর্বে সরকারি বেসরকারি অনেক জায়গায় আবেদন করেও কোনো ভালো ফল পায়নি। তার পিতা মমিনুর রহমান জানান,তার সংসারে ৫জন সদস্য, সংসার চালিয়ে মেয়ের জন্য হুইল চেয়ার দেয়ার সামর্থ্য তার নেই ।

Lab Scan
ভাগ