পাইকগাছায় আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে চিংড়ী ঘেরে পানি তুলতে বাঁধা

পাইকগাছা (খুলনা) সংবাদদাতা ॥ খুলনার পাইকগাছায় আদালতের আদেশ উপেক্ষা করে চিংড়ী ঘেরে পানি তুলতে বাঁধা দেয়া হয়েছে। একারণে খুলনা জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছে ঘের ও জমির মালিকরা। উপজেলার লতার ইউনিয়নের ২০ নং পোল্ডারে অবস্থিত চিংড়ী ঘেরে পানি তুলতে বাঁধা দেয়া হচ্ছে। টাকা না দিলে পানি তুলতে বাঁধা দেয়া হচ্ছে বলে ৫ ফেব্রুয়ারী পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে জমি ও ঘের মালিকরা। অভিযোগে জানা যায় চিংড়ী চাষ অধ্যষিত ২০ নং পোল্ডারে আদালতের ৫৭/১০ নির্দেশনা অনুযায়ী চিংড়ী ও ধান চাষীরা চাষ করে আসছে।একই সাথে চলতি বছর খুলনা বিভাগীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্বাবধায়কের খুলনা নির্দেশনা অনুযায়ী পানি তুলে চিংড়ী চাষ শুরু হয়েছে। এদিকে স্থানীয় ফারুখ হোসেন,ফহুল আমিন,আসাদুল ইসলাম, সালামগাজী,মৃন্ময় মন্ডল,আলম গাজীরা টাকা না দিলে পানি তোলায় বাঁধা দিচ্ছে বলে অভিযোগে প্রকাশ।শনিবার অভিযোগটি থানায় আসলে ওসি জিয়াউর রহমান তাদেরকে থানায় হাজির করে শনিবার সন্ধ্যায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। অপরদিকে তারা চাঁদাবাজীর কথা অস্বীকার বলেন,গেট দিয়ে লবণ তুলতে নিষেধ করা হয়েছে। যাতে লবণ পানিতে পরিবেশ নষ্ট না হয়।

Lab Scan
ভাগ