ফের হিন্দি ওয়েব সিরিজে

লোকসমাজ ডেস্ক॥ একটা খুন। ৬ জন সন্দেহভাজন। তাদের সকলেরই যথেষ্ট মোটিভ রয়েছে খুনটা করার। কিন্তু খুনটা শেষ পর্যন্ত করেছে কে? উত্তর মিলবে ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান মার্ডার’ ওয়েব সিরিজে। আগামী ৪ঠা ফেব্রুয়রি যা মুক্তি পাচ্ছে ওটিটি মঞ্চে। স্ট্রিমিং হবে ডিজনিপ্লাস হটস্টারে। সম্প্রতি মুক্তি পেলো ওয়েব সিরিজটির ট্রেলার। এরইমধ্যে সেই ট্রেলার ঘিরে চড়তে শুরু করেছে প্রত্যাশার পারদ।
বিকাশ স্বরূপের বেস্টসেলার উপন্যাস ‘সিক্স সাসপেক্টস’ অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এই সিরিজ। অভিনয় করেছেন রিচা চাড্ডা, প্রতীক গান্ধী, আশুতোষ রানা, রঘুবীর যাদব এবং অনেকেই। পরিচালনায় তিগমানশু ধুলিয়া। সিরিজের বিশেষ একটি চরিত্রে দেখা যাবে পাওলি দামকেও। সোমবারই একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছিল পাওলির। সেখানে তাকে কাঁদতে কাঁদতে জনৈকি ভিকির কারাবাসার প্রার্থনা করতে দেখা গিয়েছিল। মহিলাদের সঙ্গে কেমন আচরণ করতে হয় সেটাই জানে না ভিকি। সেই সময়ই জল্পনা শুরু হয়েছিল কার কথা বলছেন অভিনেত্রী। অবশেষে পরিষ্কার হয়ে গেল, এটা ওয়েব সিরিজটিরই প্রমোশনের অংশ। ট্রেলার থেকে স্পষ্ট, ভিকি রাইকে ঘিরেই চক্কর কাটবে গল্প। ৩২ বছরের ভিকি ছত্তিশগড়ের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জগন্নাথ রাইয়ের ছেলে। কোনো এক হোমের দু’টি মেয়েকে ধর্ষণের মামলা থেকে মুক্তি পাওয়ার আনন্দে সে পার্টি দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত সেখানেই খুন হতে হয় তাকে। ভিকি হত্যা রহস্যের তদন্ত করার ভার পড়ে ডিসিপি সুধা ভরদ্বাজ ও সিবিআই অফিসার সুরয যাদবের উপর।
এই দুই চরিত্রেই রয়েছে রিচা ও প্রতীক। ভিকির বাবা জাঁদরেল রাজনীতিবিদের ভূমিকায় আশুতোষ রানা।
ছেলের মৃত্যুর পরেও যেনতেন প্রকারে যে চরিত্রটি ভোটে জিততে মরিয়া।
নিজেকে ‘গান্ধী’ সাজিয়ে রাখা এক কৌতূহলপ্রদ চরিত্রে রয়েছেন রঘুবীর যাদব। পাওলির চরিত্রটি সেই হতভাগ্য মেয়েদের একজন, যাদের নিজের ‘ব্যবহারের সামগ্রী’ বলে মনে করে ভিকি। নারীলোলুপ ভিকির মৃত্যু যে অনেককেই খুশি করবে একথা ট্রেলারেই উচ্চারিত হয়। অর্থাৎ অনেকেই হয়তো মনে মনে মৃত্যু কামনা করে ভিকির। কিন্তু তাদের মধ্যে শেষ পর্যন্ত কে খুন করেছে ভিকিকে?
উত্তর মিলবে পরের মাসের গোড়ায়। আপাতত ট্রেলার ঘিরে জাগছে নানা প্রশ্ন ও অনুমান। সিরিজটি কেবল হিন্দি নয়, দেখা যাবে মারাঠি, বাংলা, তামিল, তেলেগু, কন্নড়, মালায়লম ভাষাতেও।

Lab Scan
ভাগ