দেশটা কি মগের মুল্লুক, ন্যাপ মহাসচিবের প্রশ্ন

লোকসমাজ ডেস্ক॥ রাষ্ট্রীয় গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলোর গ্রাহক পর্যায়ে গ্যাসের দাম এক লাফে দ্বিগুণের বেশি বাড়ানোর প্রস্তাবে গভীর উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া। তিনি বলেছেন, ‘শহীদ আসাদের রক্তের দেশটা কি মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে, যে গ্যাসের মূল্য এক লাফে দ্বিগুণের প্রস্তাব করার দুঃসাহস করছে!’ বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) শহীদ আসাদ দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির (বাংলাদেশ ন্যাপ) পক্ষ থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের সামনে আসাদের স্মৃতিস্তম্বে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ কথা বলেন। বাংলাদেশ ন্যাপ নেতারা সেখানে শহীদ আসাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।
ন্যাপ মহাসচিব বলেন, ‘দেশীয় গ্যাসের উৎপাদনে যথাযথ নজর না দিয়ে আমদানি নির্ভরতায় গুরুত্ব দেওয়ার কারণেই জ্বালানি খাতে বিপর্যয় নেমে আসছে। তা না হলে, দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের নিয়ামক এবং জনগণের নিত্যব্যবহার্য কোনো পণ্যের মূল্য এক লাফে দ্বিগুণের বেশি বাড়ানোর প্রস্তাব রাষ্ট্রীয় কোম্পানিগুলোর পক্ষ থেকে আসে কী করে! অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে দেশে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম হয়েছে।’ গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, ‘স্বদেশ মুক্তির লড়াইয়ে আসাদ এক সাহসী পথপ্রদর্শক। অন্যদিকে আসাদ আন্দোলন ও সংগ্রামের প্রেরণার উৎস। আসাদ শহীদ না হলে ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান হতো না। আসাদের আত্মদানেই তখন স্বৈরশাসক আইয়ুবের ক্ষমতার মসনদ উল্টে যায়। বর্তমান প্রজন্মকে স্বদেশ মুক্তির আন্দোলন-সংগ্রামের কথা জানতে হলে আসাদ চর্চা করতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘রান্নার গ্যাসের দাম এত বাড়ানো কার স্বার্থে? কিছু ব্যবসায়ীকে সুবিধা দিতে, জনগণের কাধে এই বোঝা চাপিয়ে দেওয়া জনস্বার্থ বিরোধী। শহীদ আসাদের প্রদর্শিত পথে লুটপাটের বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। অন্যথায় পুরো দেশটা লুটেরাদের নিয়ন্ত্রণে চলে যাবে। বাংলাদেশের এমন কোনো ক্ষেত্র আজ নেই যেখানে লুটপাটের রাজত্ব কায়েম হয়নি। এটা ঘটেছে দুর্নীতির ব্যাপক বিস্তারের মাধ্যমে। বাংলাদেশে দুর্নীতি ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র, মহামারির মতো।’ এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, বাংলাদেশ ন্যাপের ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, যুগ্ম মহাসচিব মো. মহসিন ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, ঢাকা মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হাবিবুর রহমান প্রমুখ।

Lab Scan
ভাগ