তালায় প্রধান সড়কে চলাচলে দুর্ভোগ

সেলিম হায়দার, তালা (সাতক্ষীরা) ॥ দীর্ঘদিন সংস্কার না করার কারণে চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে তালা উপজেলার প্রধান সড়ক। রাস্তার অধিকাংশ স্থানে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় প্রতিনিয়তই যানবাহন চালক, যাত্রীসহ সাধারণ মানুষকে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।
স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আঠরোমাইল ভায়া তালা টু পাইকগাছা-কয়রা সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৬০ কিলোমিটার রাস্তা একনেকে অনুমোদন হয়ে টেন্ডার হয়েছে। ৩৩৯ কোটি ৫৪ লাখ টাকা বরাদ্দের কাজ পেয়েছেন মোজাহার এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠানটি কাজ শুরু করলেও চলছে ধীরগতিতে।
মঙ্গলবার সরজমিনে দেখা যায়, ৬০ কি.মি. রাস্তাটি তালা হয়ে কপিলমুনি দিয়ে পাইকগাছায় উঠেছে। দীর্ঘ সড়কের উপজেলার তালা বাজার, গোনালী বাজার, শাহাপুর বাজারের শতাধিক স্থানে পিচের ঢালাই উঠে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এরমধ্যে উপজেলার প্রাণকেন্দ্র তালা বাজারের রাস্তাটির বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। সামান্য বৃষ্টিতেই এসব গর্তে পানি জমছে। রাস্তার ছোট-বড় গর্তে উল্টে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বিভিন্ন যানবাহন। যাত্রীরাও ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। প্রতিনিয়ত এই সড়কটি ব্যবহার করেন দক্ষিণ-পশ্চিমঞ্চালের হাজার হাজার মানুষ। পাইকগাছা-কয়রা এলাকায় প্রবেশ করার একমাত্র সড়ক হওয়ার সত্ত্বেও কর্তৃপক্ষ সড়কটি সংস্কারের কার্যকর কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না।
মীর জিল্লুর রহমান, আব্দুর রহমান, খায়রুল ইসলাম, শিমুল শীল, তীর্থ কুমারসহ অনেক পথচারীরা জানান, রাস্তাটি দক্ষিণ-পশ্চিমঞ্চালে এলাকার মানুষের চলাচলের একমাত্র পথ হওয়ায় মহাদুর্ভোগের মধ্য দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে তাদের। শুকনো মৌসুমে কোনো রকম চলাচল করা গেলেও বর্ষা মৌসুমে বিপদের শেষ থাকে না। গাড়ি চালক ও পথচারীরা জানান, বর্তমানে এই রাস্তার অবস্থা খুবই নাজুক। রাস্তার মাঝে মাঝে পিচের কার্পেটিং উঠে গিয়ে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। কয়েকদিনের টানা বর্ষণে ছোট-বড় গর্তে পানি জমে থাকায় ভোগান্তি চরমে পৌঁঁছেছে। তারা দ্রুত রাস্তাটি সংস্কার করার দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী রথীন্দ্র নাথ হালদার জানান, রাস্তাটি আমাদের অধীনে নয়। এটি সড়ক ও জনপথের অধীন। তারা রাস্তাটির সংস্কার করতে পারবেন। তবে তালা বাজারের রাস্তাটির অবস্থা খুবই নাজুক বলে স্বীকার করেন তিনি।
সড়ক ও জনপথের খুলনা জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ আসলাম আলী জানান, সড়কের বর্তমান অবস্থা খতিয়ে দেখে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Lab Scan
ভাগ