সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে বাবার হত্যাকারীদের গ্রেফতার দাবি

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা ॥ বাবার হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে ছেলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। রবিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন, জেলার কলারোয়া উপজেলার ওফাপুর পূর্বপাড়া গ্রামের নিহত শেখ রেজাউল ইসলামের ছেলে শেখ রিপন (৩৯)।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, কলারোয়া উপজেলার বসন্তপুর তালতলায় তার একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে। সেখানে তিনি পোল্ট্রি মুরগির ব্যবসা করেন। এই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হতে ওফাপুর গ্রামের আব্দুল মাজেদ ঢালীর ছেলে উজ্জ্বল ঢালী ২০ হাজার টাকার পোল্ট্রি মুরগি বাকিতে কেনেন। গত ৭ জুলাই উজ্জ্বল ঢালীর কাছে বাকি টাকা চাইলে তিনি তার (রিপনের) ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে মারধর শুরু করেন। এক পর্যায়ে উজ্জ্বল ঢালী, হৃদয় মোড়ল ও ইমান আলী তাকে কিল ঘুষি, লাথি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করেন। এ সময় পাশে থাকা তার বাবা শেখ রেজাউল ইসলাম তাকে উদ্ধার করতে আসলে উজ্জ্বল ঢালী তার বাবার বুকে সজোরে লাথি মেরে গুরুতর আহত করেন। বাবাকে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘাতক উজ¦ল ঢালীর সহযোগী হিসেবে এ সময় হামলা চালান ওফাপুর গ্রামের আফজাল ঢালী, রনি ঢালী, হায়দার ঢালী, হৃদয় মোড়ল, আজগর ঢালী, ঈমান আলী বিশ্বাস, আকিমদ্দি বিশ্বাস, অজেদ ঢালী ও রুহুল আমিন মোড়ল। উক্ত ব্যক্তিরা সবাই আগে থেকেই পরিকল্পিতভাবে তাদের উপর হামলা করেন বলে তিনি জানান।
তিনি জানান, এ ঘটনার পরদিন ৮ জুলাই তিনি কলারোয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু অজানা কারণে পুলিশ আজও পর্যন্ত এ মামলায় কোন আসামিকে গ্রেফতার করেনি। অথচ এ মামলার প্রধান আসামী উজ্জ্বল ঢালী এখনও এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন।
সংবাদ সম্মেলন শেখ রিপন এ সময় তার বাবার হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও তার পাওনা টাকা উদ্ধারের জোর দাবি জানান। একইসাথে হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

 

 

 

Lab Scan
ভাগ