সাড়ে ৩ বছরে মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে ডিএসইর সূচক

লোকসমাজ ডেস্ক॥ সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের বড় উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন শেয়ারবাজারে সূচকের সঙ্গে লেনদেনও বেড়েছে। আর ডিএসই ও সিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমেছে।
ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৪.০২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬ হাজার ৩০৭.৩৫ পয়েন্টে। যা ডিএসইর ইতিহাসে সাড়ে ৩ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থান। এর আগে ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ডিএসইর সূচক ছিল ৬ হাজার ৩০৬.৮৬ পয়েন্টে। এদিকে শরিয়া সূচক ৬.২৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১ হাজার ৩৫৯.৩৬ পয়েন্টে। ডিএসই-৩০ সূচক ০.২০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ২ হাজার ২৭৪.৯০ পয়েন্টে।
ডিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৭৮৯ কোটি ৮৫ লাখ টাকা, যা আগের দিনের চেয়ে ১৪ কোটি টাকার বেশি। এদিন লেনদেন শেষে ডিএসইতে মোট ৩৭৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ২৭০টির, দর কমেছে ৭৯টির এবং দর অপরিবর্তিত আছে ২৬টির।
এদিকে, সিএসইর প্রধান সূচক সিএসইএক্স ৭৩.১২ পয়েন্টে বেড়ে অবস্থান করছে ১০ হাজার ৯৯৯৫.২২ পয়েন্টে। এছাড়া, সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১২৫.৮৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৮ হাজার ৩২৭.৮৬ পয়েন্টে।
এদিন সিএসইতে ৩২১টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৩২১টির, দর কমেছে ২২২টির এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৭৪টির।
সিএসইতে ৬৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের চেয়ে ১৬ কোটি টাকা কম।

Lab Scan
ভাগ