সাগরে হঠাৎ বিকল হলো ইঞ্জিন, অতঃপর …

বাগেরহাট সংবাদদাতা॥ একটি ফিশিং ইঞ্জিন (প্রোপেলর) হঠাৎ বিকল হয়। এরপর ভাসতে ভাসতে বঙ্গোপসাগরের ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। এরপর ১৫ দিন ভারতীয় কোস্টগার্ড ট্রলারটিকে উদ্ধার করে। উদ্ধারের পর বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের কাছে হস্তান্তর করে তারা। বৃহস্পতিবার দুপুরে মোংলা কোস্টগার্ডের পশ্চিম জোন সদর দপ্তরে উদ্ধার হওয়া ওই ট্রলার ও জেলেদেরকে আনা হয়। এরপর ট্রলার ও জেলেদের ট্রলার মালিককে তার বুঝিয়ে দিয়েছে মোংলা কোস্টগার্ড। উদ্ধার হওয়া জেলেদের বাড়ী কক্সবাজারে। কোস্টগার্ডের পশ্চিম জোন সদর দপ্তরে মিডিয়া কর্মকর্তা লে. কমান্ডার এম হামিদুল ইসলাম বলেন, চট্টগ্রাম থেকে এফ, ভি রানা নামের ফিসিং ট্রলারটিতে করে ১৯ জন জেলে গত ১৫ই নভেম্বর গভীর সাগরে মাছ ধরার জন্য যায়। এরপর ২৩শে নভেম্বর ট্রলারটি প্রোফেলর ভেঙ্গে গেলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ভাসতে ভাসতে ভারতীয় জলসীমায় চলে যায়। প্রায় ১৫ দিন ধরে মাঝ সমুদ্রে ভাসার পর ভারতীয় কোস্টগার্ডেরন একটি জাহাজ ওই ট্রলারটিকে দেখতে পায়। এরপ গত ৮ই ডিসেম্বর ভারতীয় কোস্টগার্ড ওই ট্রলারটিকে উদ্ধার করে। এরপর ৯ই ডিসেম্বর ভোর ৬টার সময় বঙ্গোপসাগরের বাংলাদেশ জলসীমায় টহলরত কোস্টগার্ডের জাহাজ সোনার বাংলার কাছে হস্তান্তর করে। তিনি আরো বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে জেলেসহ ট্রলারটিকে মোংলাস্থ কোস্টগার্ডের পশ্চিম জোন সদর দপ্তরে আনার পর ট্রলার ও জেলেদেরকে ট্রলার মালিক মো. রানার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।