শার্শা-বেনাপোল সীমান্তে এক বছরে ১৮ কোটি টাকার ভারতীয় মালামাল জব্দ

স্টাফ রিপোর্টার॥ যশোরের বেনাপোলসহ শার্শা সীমান্ত থেকে গত এক বছরে প্রায় ১৮ কোটি টাকার ভারতীয় মালামাল জব্দ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা। এর মধ্যে রয়েছে ১৩টি পিস্তল, ২৪টি ম্যাগাজিন, ৫৮টি গুলি, ২৫ দশমিক ৪১ কেজি স্বর্ণের বার, ২০ হাজার ৮২৭ বোতল ফেনসিডিল, ৫৪৭ কেজি গাঁজা, ৪০৬ বোতল মদ, ৫৬৭টি ইয়াবা, ৪০ গ্রাম হেরোইন। এছাড়া মোট ২০১ জনকে আটক করা হয়েছে।
বুধবার বেনাপোল বিজিবি কোম্পানি সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে শার্শা সীমান্তে গত এক বছরে বিজিবির সাফল্যের কথা জানান যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. সেলিম রেজা। এসময় তিনি বলেন, আটককৃত সব মালামাল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আটক করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে সীমান্তের কিছু মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী বিভিন্ন কৌশলে ভারত থেকে মাদক এবং অস্ত্র এনে দেশের বিভিন্ন এলাকায় নিয়ে বিক্রি করতো। তারই মূল্য হিসেবে স্বর্ণ ও হুন্ডির চালান পাচারের মাধ্যমে পরিশোধ হতো। এমন সংবাদের ভিত্তিতে এধরনের মাদক, অস্ত্র, স্বর্ণ ও হুন্ডি পাচারকারীদের চিহ্নিত করে সীমান্ত এলাকায় গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ানো হয়। সীমান্তের মাদক, অস্ত্র, স্বর্ণ ও হুন্ডি সম্রাট রাঘব বোয়ালরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায় এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের চিনলেও আটক না করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাঘববোয়াল চোরাকারবারিরা সাধারণত নিজেরা মাদক, স্বর্ণ ও হুন্ডিসহ বিভিন্ন চোরাচালানের পণ্য নিজেরা বহন করে না। এ কারণে তাদের হাতেনাতে আটক করা সম্ভব হয় না। যে কারণে বার বার তাদের চোরাচালানের সামগ্রী আটক হলেও তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা সম্ভব হয় না বলে জানান তিনি।