ঈদের সময় যেন গোটা বিশ্ব করোনা মুক্ত হয়ে যায়: মোদি

লোকসমাজ ডেস্ক॥ করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ভারতের লড়াই সারা বিশ্বে চর্চিত হবে মনে বলে মনে করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আজ রবিবার রেডিও তে ৬৪ তম ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে করোনা মোকাবিলা যে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তার উল্লেখ করার পাশাপাশি সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ যেভাবে এগিয়ে এসেছেন তারও প্রশংসা করেছেন মোদি।
মোদি বলেন, করোনা মোকাবিলায় ভারতের যুদ্ধ হল জনগণ দ্বারা পরিচালিত। আপনারা এর বিরুদ্ধে লড়াই করছেন, প্রশাসনও আপনাদের সাথে লড়াই করছে। আমাদের ভারতের মতো দেশ এইভাবেই এক লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এই লড়াইয়ে আপনারা প্রত্যেকেই একজন সৈনিক।
তিনি বলেন, মানুষকে খাবার বিতরণ হোক বা হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা- প্রত্যেকেই সহায়তা করছে। আমাদের কৃষক ভাইদের দিকে তাকান- তারা শষ্য ফলাচ্ছে, যাতে একজনও না খেতে পেয়ে মারা যায়। কেউ মাস্ক তৈরি করছেন , কেউ খাবার তুলে দিচ্ছেন। এমনকি করোনা সন্দেহে যে মানুষরা আছেন তারাও সেই সেন্টারকে সুন্দরভাবে এঁকে তুলছেন। ভবিষ্যতে যখনই করোনাভাইরাস প্রসঙ্গ সামনে আসবে, ভারতবাসীর এই লড়াই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হবে, তাতে ভারতের উল্লেখ থাকবে।’
এদিনের ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠান থেকে একাধিক পরামর্শও দেন মোদি। তিনি বলেন, যেখানে সেখানে থুতু ফেলার কুঅভ্যাস বরাবরের জন্য বদলাতে হবে। প্রয়োজন না হলে ঘরেই থাকার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন বাইরে বের হলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে এবং এক্ষেত্রে ‘দো গজ দুরী’ (ছয় ফুট) মন্ত্র মাথায় রাখতে হবে।
সকলকে ফেস্ক মাস্ক পরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, করোনার কারণে আমাদের জীবনে ‘মাস্ক’ একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে দাঁড়াবে। এর অর্থ এই নয় যে মাস্ক পরিহীত সকলেই রোগী। সভ্য সমাজের একটা প্রতীক হয়ে গাঁড়াবে এই মাস্ক।’
করোনার ফলে জনগণের স্বভাবেও পরিবর্তন এসেছে বলেও মনে করেন মোদি। রমজানকে সেবা-সমবেদনার প্রতীক হিসাবে দেখার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অতীতে যখন রমজান পালন করা হয়েছে, তখন কেউ কোনদিন ভাবেনি যে এই বছর রমজানের সময় এত সমস্যার মুখে পড়তে হবে। এ বছর ঈশ্বরের কাছে আমাদের দোয়া করতে হবে যে ঈদের সময় যেন গোটা বিশ্ব করোনা ভাইরাস মুক্ত হয়ে যায়।

Lab Scan
ভাগ