ভারত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ায় কমছে পেঁয়াজের দাম

লোকসমাজ ডেস্ক॥ ভারত বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের আদেশ প্রত্যাহার করে নেয়ায় বাজারে পণ্যটির দাম এখন কমতির দিকে। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে রাজধানীতে পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজি প্রতি ১৫ থেকে ২৫ টাকা। কমেছে রসুনের দামও।
শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মিরপুর ২, হাতিরপুল বাজারসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে এ তথ্য জানা গেছে।
বাজারে এখন আমদানি করা (চায়না ও পাকিস্তানি) পেঁয়াজের কেজি ৭০ থেকে ৭৫ টাকায় এবং দেশি পেঁয়াজ ৮০ থেকে ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
ব্যবসায়ীরা জানান, ৪ মাস ধরে ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ রেখেছিল। এতে বাংলাদেশের বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কমে গেছে। এখন বাজারে নতুন পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ছে এবং ভারত রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে। এসব কারণে দাম কমছে।
বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পেঁয়াজের পাশাপাশি কমছে রসুনের দামও। আমদানি করা চীনা রসুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৭০-১৮০ টাকায়, যা গত সপ্তাহে ছিল ২০০-২১০ টাকা। আর দেশি রসুনের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০-৯০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ১৪০-১৫০ টাকা। এ হিসাবে সপ্তাহের ব্যবধানে দেশি রসুনের দাম কেজিতে কমেছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী আলী আহমদ বলেন, ভারত রপ্তানি বন্ধ করায় বাংলাদেশে লাফিয়ে লাফিয়ে পেঁয়াজের দাম বেড়েছিল। এখন ভারত রপ্তানির বাজার চালু করায় আবার দাম কমেছে। আর দেশি নতুন কাঁচা রসুনের সরবরাহ বাড়ায় এর দাম কমেছে।
তবে কারওয়ান বাজারের থেকে পাড়া-মহল্লার বাজার বা খুচরা দোকানে পেঁয়াজ-রসুন ৫ থেকে ১০ টাকা বেশি দামে বিক্রি হতে দেখা গেছে। এছাড়া শীত মৌসুমের কয়েকটি সবজি ছাড়া প্রায় সবজির দাম রয়েছে স্বাভাবিক।

Lab Scan
ভাগ