৭০০ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বন্ধ শাহজালালের ওরস

লোকসমাজ ডেস্ক॥ সিলেটে ৭০০ বছর ধরে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে হযরত শাহজালাল (রহ.) এর ওরস মোবারক। আগামী ১১ ও ১২ জুলাই ৭০১তম বার্ষিক ওরস অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তবে করোনাভাইরাসের কারণে এবার ওরসের অনুষ্ঠান হবে না বলে জানিয়েছে মাজার কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার (৩০ জুন) বিকেলে দরগাহ অফিসে জরুরি বৈঠক শেষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান দরগাহের মোতাওয়াল্লি ফতেহ উল্লাহ আল আমান। ফতেহ উল্লাহ আল আমান জানান, হযরত শাহজালাল (রহ.) এর বার্ষিক ওরসে লক্ষাধিক ভক্ত-আশেকান সমবেত হন। করোনা পরিস্থিতিতে যদি ওরস হয়, তাহলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা কঠিন হবে। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে জনগণের স্বাস্থ্য ঝুঁকিকে অগ্রাধিকার দিয়ে এ বছর ওরসের আনুষ্ঠানিকতা হচ্ছে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
এ অবস্থায় তিনি ভক্তদের মাজারে একত্রিত হয়ে ভিড় না করে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে দোয়ার মাধ্যমে ওরসে শরীক হওয়ার জন্য আহ্বান জানান। ওই বৈঠকে শাহজালাল (রহ.) ও ৩৬০ আওলিয়া ভক্তবৃন্দ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. মকন মিয়া চেয়ারম্যান, মাজারের খাদেম তৌফিক আহমদ চৌধুরী লাভলু, হযরত শাহজালাল (রহ.) ও ৩৬০ আওলিয়া ভক্তবৃন্দ পরিষদের সহ-সভাপতি শেখ জালাল ফরিদ উদ্দিনসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, প্রতি বছরের আরবি মাসের ১৯ ও ২০ জিলক্বদ হযরত শাহজালাল (রহ.) এর বার্ষিক ওরস অনুষ্ঠিত হয়। প্রথা অনুসারে গিলাফ ছড়ানোর মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয় দুই দিনব্যাপী ওরসের কার্যক্রম। সারারাত বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভোরে আখেরি মোনাজাতের পর সকালে শিরনি বিতরণের মধ্য দিয়ে ওরসের সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়। ওরস উপলক্ষে দরগা এলাকা উৎসবের সাজে সাজানো হয়। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা হাজার হাজার ভক্ত-আশেকানরা ভিড় করেন মাজারে। এসময় সব বয়সের মানুষের পদভারে মাজার এলাকা ছাড়াও পুরো সিলেট নগর মুখরিত হয়।

ভাগ