সুন্দরবনে অভয়ারণ্যে মাছ ধরতে গিয়ে ১৭ জেলে আটক

0

শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) সংবাদাতা॥ পশ্চিম বন বিভাগ সাতক্ষীরা রেঞ্জের বুড়িগোয়ালিনী বন-স্টেশন অফিসের সদস্যরা গোপন খবর পেয়ে পৃথক অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ এলাকায় অবৈধভাবে নৌকা ও ট্রলার দিয়ে মাছ ধরার সময় ১৭ জেলেকে আটক করেছে।  সোমবার ভোর রাতের দিকে সাতক্ষীরা রেঞ্জের বুড়িগোয়ালিনী বন-স্টেশনের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) এ কে এম ইকবাল হোসেন চৌধুরী নেতৃত্বে বনকর্মীরা গহিন সুন্দরবনের তালপট্টি পানির খাল এলাকায় থেকে ১২ জন ও মান্দারবেড়ী আঠারবেকী এলাকা থেকে ৫ জনকে আটক করে বন-বিভাগের সদস্যরা। এসময় জেলেদের ব্যবহৃত পাঁচটি নৌকা, দু-টি ট্রলার, চরপাটা ৯৫ রশি জাল, পাটা জালসহ বিভিন্ন মালামাল জব্দ করা হয়।
আটকরা হলেন,খুলনা জেলার রামনগর গ্রামের মশিয়ার হাওলাদারের ছেলে লিপন, আলেকের ছেলে মামুন, ইলিয়াছ সরদারের ছেলে খায়রুল উভয় বাগেরহাট জেলার উলোবুনিয়া গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে মুজাহিদ, কয়রা উপজেলার সাতহালিয়া গ্রামের হালিম শেখের ছেলে সাদ্দাফি হোসেন, ফকিরহাট উপজেলার দিয়াপাড়া গ্রামের আক্কেল হাওলাদারের ছেলে ওলি হাওলাদার, রামপাল উপজেলার চাদঁপুর গ্রামের লিয়াকত আলীর ছেলে নান্নু মাসুদ শেখ,একই উপজেলার ভেটবামারী গ্রামের খালেক মোল্লার ছেলে সাইফুল ও রফিকুল, একই গ্রামের খালেক মোল্লার ছেলে রেজাউল,শহিদ শেখের ছেলে রিপন শেখ, রামপাল উপজেলার টেংরামারী গ্রামের জাকির হোসেনের ছেলে নাজিম শেখ।
শ্যামনগর উপজেলার টেংরাখালি গ্রামের মোহাম্মদ গাজীর ছেলে আব্দুস সাত্তার,মান্দার গাজীর ছেলে মহাসিন, পার্শ্বেখালি গ্রামের কওছার আলীর ছেলে শহিদুল,মাওলা বক্স মোড়লের ছেলে মজিদ মোড়ল, চকবারা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে ইন্দ্রিস।
সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) এ কে এম ইকবাল হোসেন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সুন্দরবনে অবৈধভাবে নৌকা ও ট্রলার নিয়ে মাছ ধরার সময় পৃথক অভিযান চালিয়ে ১৭ জেলেকে আটক করা হয়। এসময় জেলেদের ব্যবহৃত কয়েক লক্ষাধিক টাকা মূল্যের চরপাটা জাল, ট্রলার ও নৌকাসহ আনুসাঙ্গিক মালামাল জব্দ করা হয়। আটক জেলেদের বন আইনে মামলায় সাতক্ষীরা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

 

Lab Scan