সাতক্ষীরায় ছিনতাই মামলা তুলে নিতে হুমকির প্রতিবাদ

0

শেখ মাসুদ হোসেন, সাতক্ষীরা॥ সাতক্ষীরার নগরঘাটায় এক ব্যবসায়ীর সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা ও মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় দায়ের করা মামলা তুলে নিতে খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকি ধামকি দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে উক্ত সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন, তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার নগরঘাটা গ্রামের আব্দুল মাজেদ শেখের ছেলে ক্ষতিগ্রস্ত ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী মোক্তার হোসেন।
তিনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমি একজন ইট ব্যবসায়ী। নগরঘাটাসহ বিভিন্ন এলাকায় ইট ভাটা থেকে ইট ক্রয় করে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানে সুনামের সাথে বিক্রয় করে আসছি। সম্প্রতি নগরঘাটা গ্রামের আব্দুল করিমের পুত্র ড্রাইভার সাইফুল ইসলাম আমাকে ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করার চক্রান্ত শুরু করে এবং সুনাম নষ্ট করতে মরিয়া হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে গত ১৮ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৭টার দিকে আমার ব্যবসায়ীক সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা নিয়ে পালসার মোটরসাইকেল যোগে ইটভাটা মালিক ও শ্রমিকদের দেওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হলে পথিমধ্যে বিনেরপোতা ব্রীজের পাশে ইউনুসের চায়ের দোকান সংলগ্ন এলাকায় পৌছালে ড্রাইভার সাইফুল ও কবিরুলসহ কতিপয় ব্যক্তি আমার গতিরোধ করে আমাকে বেধড়ক মারপিট করতে থাকে। এ সময় তারা আমার ব্যাগে থাকা সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা ও আমার মোটরসাইকেলটি ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়। এসময় আমি ডাক চিৎকার করলে তারা দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে বিভিন্ন ভাবে আমার টাকা এবং মোটরসাইকেল উদ্ধারের চেষ্টা করলেও তা সম্ভব হয়নি। কোন উপায় না পেয়ে আমি গত ২০ ডিসেম্বর বিজ্ঞ আমলী আদালত-১-এ একটি মামলা দায়ের করি। তিনি আরো বলেন, মামলার খবর পেয়ে ড্রাইভার সাইফুল আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং আমাকে ডিবি পুলিশ দিয়ে আটক করিয়ে হয়রানি করবে মর্র্মে হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। মামলা তুলে না নিলে খুন জখমসহ মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানির করবে বলেও হুমকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। এ ঘটনায় আমি পাটকেলঘাটা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। যার নং-৯৩। সংবাদ সম্মেলন থেকে ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী মোক্তার হোসেন এ সময় ড্রাইভার সাইফুলের হাত থেকে তার টাকা ও মোটরসাইকেল উদ্ধার পূর্বক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Lab Scan