সাতক্ষীরার শ্যামনগরে করোনার টিকা নিতে যেয়ে দোতলার রেলিং থেকে পড়ে মৃত্যু

0

শেখ মাসুদ হোসেন, সাতক্ষীরা॥ কোভিড -১৯ এর দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিতে যেয়ে দোতলার রেলিং থেকে পড়ে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধির মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার হরিনগর বনশ্রী বিদ্যা নিকেতনে (মাধ্যমিক বিদ্যালয়) এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম আঞ্জুয়ারা খাতুন ওরফে আঞ্জু (৩৫)। তিনি সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের হরিনগর গ্রামের মৃত আবুজার মোড়লের মেয়ে।
শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিদর্শক লক্ষী রানী মন্ডল জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টা থেকে ৫ তলা বিশিষ্ঠ হরিনগর বনশ্রী বিদ্যা নিকেতনের ২য় তলা দ্বিতীয় তলায় মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের জনসাধারনের জন্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ ও গণটিকা কার্যক্রম শুরু করা হয়। সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে হরিনগর গ্রামের চায়না খাতুন তার বুদ্ধি প্রতিবন্ধি মেয়ে আঞ্জুয়ারা খাতুনকে রেলিং এর পাশে বেঞ্চে বসিয়ে রাখেন। কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই আঞ্জুয়ারা রেলিং টপকে নীচে পড়ে যায়।
শ্যামনগর উপজেলার হরিনগর গ্রামের চায়না খাতুন জানান, টিকা নিতে এসে তার মেয়ে বেঞ্চ থেকে উঠে রেলিং এর উপর ওঠার চেষ্টা করার একপর্যায়ে নীচে পড়ে মারা যায়। হরিনগর বনশ্রী বিদ্যা নিকেতনের প্রধান শিক্ষক আব্দুল করিম জানান, আঞ্জুয়ারা দোতলা থেকে পড়ে যাওয়ার সময় তিনি অফিসে ছিলেন। খবর পেয়ে ছুঁটে আসেন হরিনগর নৌ পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা উপপরিদর্শক তারক চন্দ্র বিশ্বাস। আঞ্জুয়ারাকে মারাত্মক জখম অবস্থায় শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে´ে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ তরিকুল ইসলাম তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। হরিনগর নৌ পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা উপপরিদর্শক তারক চন্দ্র বিশ্বাস জানান, চায়না খাতুন তার প্রতিবন্দি মেয়েনে নিয়ন্ত্রণে না রাখতে পারায় এ ধরণের দুর্ঘটনা ঘটেছে। শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী ওয়াহিদ মুৃর্শিদ জানান, খবর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইুন শাফায়েত বলেন, কেন্দ্রে কারও গাফিলতি থাকলে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Lab Scan