‘সাঈদীর মাগফিরাত কামনা করে’ বহিষ্কার হলেন যশোরে ছাত্রলীগ নেতা মারুফ

0

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যু নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে সংগঠন থেকে বহিষ্কার হলেন যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ হোসেন। শুক্রবার রাতে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন কবির পিয়াস ও সাধারণ সম্পাদক তানজীব নওশাদ পল্লব স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। একই সাথে স্থায়ী বহিষ্কার করার জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে সুপারিশ দিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘সংগঠনের নীতি ও আদর্শ বিরোধী কাজে জড়িত থাকায় তাকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে এবং কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে স্থায়ী বহিষ্কারের অনুরোধ করা হয়েছে। তবে সুনির্দিষ্ট কি কারণে মারুফ হোসেনকে বহিষ্কার করা হয়েছে সেটা বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়নি।
তবে জেলা ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ আগস্ট মানবতাবিরোধী অপরাধে কারাদণ্ড প্রাপ্ত মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুর পরে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মারুফ হোসেন তার ফেসবুকে সাঈদীর ছবিসংবলিত সংবাদ কার্ড শেয়ার করেন। একই সাথে তাঁর মাগফিরাত কামনা করেন। এর পর থেকে যশোর আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনগুলোর নেতৃবৃন্দ ছাত্রলীগ নেতার পোস্টটি স্ক্রিনশর্ট দিয়ে সমালোচনা ও বহিষ্কারের দাবি তোলেন। এরই প্রেক্ষিতে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেন। তবে কয়েক ঘন্টা পর ছাত্রলীগ নেতা মারুফ আবার সেই পোস্ট মুছে ফেলেন।
জেলা ছাত্রলীগ সূত্রে আরও জানা গেছে, ছাত্রলীগ নেতা মারুফ হোসেনের বিরুদ্ধে এর আগে মাদক সেবনের অভিযোগ ওঠে। চলতি বছরে মাদকদ্রব্য সেবনের এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। যা নিয়েও ব্যাপক সমালোচিত হয়।
এই বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা মারুফ হোসেন দাবি করেছেন, এটি সম্পূর্ণ ষড়যন্ত্র। গত ১৩ আগস্ট তার ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বিতর্কিত এ পোস্ট দেওয়া হয়েছে। পরে তার বন্ধুদের মাধ্যমে জানতে পারেন যে তার হ্যাক হওয়া আইডি থেকে সাঈদীকে নিয়ে একটা পোস্ট দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার রাতে আইডিটা ফিরে পেয়ে সেটি ডিলেট করা হয় বলে তিনি জানান। এই বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানাতে জিডিও করেছেন বলে জানান তিনি।
এই বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন কবির পিয়াস বলেন সংগঠনের আদর্শবিরোধী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদককে অব্যাহতি সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সুপারিশ করা হয়েছে।

Lab Scan