শোক দিবসের খাবার নিয়ে আ.লীগের সংঘর্ষে আহত ৬

0

 

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার রাখালগাছি ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে শুক্রবার সন্ধ্যায় শোক দিবসের খাবার নিয়ে আওয়ামী লীগের দু পক্ষের মারামারির ঘটনায় অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন। আহতদের কালীগঞ্জ ও যশোরে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাখালগাছি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে খাবার বিতরণ চলছিল। এসময় নরদহি গ্রামের ইরাদ হোসেন খাবার বিতরণ শুরু করলে দরবেশ আলী নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা খাবারের হাড়ি নিয়ে চলে যেতে চান। এ নিয়ে ইরাদ হোসেন ও দরবেশ আলীর মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরুর এক পর্যায়ে রঘুনাথপুর এলাকার মিরাজ হোসেন ইরাদ হোসেনকে মারধর করেন। মারামারি ঠেকাতে গেলে ইরাদ আলীর চাচাতো ভাই টনিকেও মারধর করা হয়। পরে কয়েকজন যুবক মিরাজ হোসেনকে মারধর করেন। ইরাদ হোসেন জানান, খিচুড়ি বিতরণ নিয়ে একটু ঝামেলা হয়েছিল। এর বেশি কিছু না। পরে বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে। টনি হোসেন জানান, চাচাতো ভাই ইরাদ হোসেনকে ঠেকাতে গিয়ে তিনি নিজেও মারধরের শিকার হয়েছেন। রঘুনাথপুর গ্রামের মিরাজ হোসেন তাকে মারধর করেন বলে অভিযোগ করেন। বিষয়টি নিয়ে রাখালগাছি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলাম মন্টু জানান, শোক দিবসের খাবার বিতরণ নিয়ে একটু ঝামেলা হয়েছিল। পরে দু’পক্ষকে ডেকে মীমাংসা করে দিয়েছি।

Lab Scan