শৈলকুপায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পৌর কাউন্সিলরের মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন

0

শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পৌর কাউন্সিলর ও তার কর্মী সমর্থকেরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল,মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে জেলা রিপোটার্স ইউনিটের কার্যালয়ে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা সম্পাদক নিলুফা ইয়াসমিন শৈলকুপা পৌরসভার কাউন্সিলর মুসা খাঁনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন অভিযোগ করেন।
লিখিত বক্তব্যে নিলুফা জানান, মুসা খাঁন ও তার অনুসারীরা তার বাড়িতে ও পারিবারিক সদস্যদের ওপর দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে অত্যাচার করে আসছেন। মুসা খানের বিরুদ্ধে জমি দখলের পাঁয়তাড়া,শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর ও পারিবারিক সদস্যদের ওপর হামলার অভিযোগ করেন তিনি।
তার প্রতিবাদে রোববার দুপুরে ৫নম্বও ওয়ার্ডের পৌর কাউন্সিলর মুসা খান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিলুফা ইয়াসমিনের ‘মিথ্যা ভিত্তিহীন বানোয়াট’ সংবাদ সম্মেলনকে চ্যালেঞ্জ করে শৈলকুপা শহরে বিক্ষোভ মিছিল,মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেন। নারী-পুরুষ রাজনৈতিক কর্মী- সমর্থকেরা নিলুফা ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে ব্যানার, ফেস্টুন, প্লাকার্ডসহ শ্লোগানে শৈলকুপা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা শহীদ মিনার পাদদেশে মানববন্ধন করেন। এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নাসিরুল ইসলাম খাঁন, সাবেক কাউন্সিলর খাইরুল ইসলাম মুকুল, বর্তমান কাউন্সিলর মুসা খাঁন বক্তব্য রাখেন।স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাবেক নেতা বাবু খাঁনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে নিলুফা ইয়াসমিনকে অসভ্য আখ্যায়িত করে ‘মিথ্যা’ অভিযোগ প্রত্যাহার, দলীয় শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানানো হয়।
মানবন্ধন শেষে শৈলকুপা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে কাউন্সিলর মুসা খাঁন লিখিত অভিযোগে বলেন, নিলুফা ইয়াসমিন আমার বিরুদ্ধে শিশু হত্যা, বাড়ি ভাংচুর ও চাঁদা দাবির অভিযোগ করেন যার কোন সত্যতা নেই। দাউদ নামের এক ব্যক্তির সাথে তার জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে বর্তমানে সেটা আদালতে বিচারাধীন। অথচ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নিলুফা ইয়াসমিন আমার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে বেড়াচ্ছেন। তাই আমার বিরুদ্ধে নিলুফা যে অভিযোগ করেছেন তা সব মিথ্যা। আমি এর সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এর প্রতিবাদ জানাই।

Lab Scan